হেফাজতে উত্তরসূরী নির্ধারণ করে গেছিলেন আল্লামা শফি?

রিডার::চট্টগ্রাম

বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০৪:১৪:২৫ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
যোগ্য নেতৃত্ব বেঁচে থাকতেই

যোগ্য নেতৃত্ব মৃত্যুর আগেই নাকি ঠিক করে গেছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের প্রয়াত আমির আল্লামা আহমদ শফী। তাঁর নির্ধারণ করে যাওয়া নতুন কমিটিতে নিজে আমির এবং মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী স্বপদে বহাল থাকলেও সিনিয়র নায়েবে আমির হিসেবে নির্বাচিত করে গেছেন মাওলানা আহমদ দিদার কাসেমীকে।

এছাড়া বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পদেও পরিবর্তন আনা হয়। গত ১৩ আগস্ট আল্লামা শাহ আহমদ শফী স্বাক্ষরিত হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের অনুমোদিত কমিটির কপি দলের কাছে সংরক্ষিত রয়েছে।

আল্লামা আহমদ শফী ও আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর মধ্যে বিগত কয়েক বছর ধরে সাংগঠনিক দূরত্ব তৈরি হলেও গত ৮ জুলাই দুই শীর্ষ নেতা আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার ঘোষণা দেন।

গত ১৩ আগস্ট হেফাজতে ইসলামের ২১১ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটির স্বাক্ষর করেন আল্লামা আহমদ শফী ও মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী। নতুন কমিটিতে ১০ সদস্য বিশিষ্ট একটি উপদেষ্টা কমিটি নতুনভাবে যুক্ত করা হয়েছে।

নতুন কমিটিতে হেফাজতের আমির আল্লামা আহমদ শফী ও মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী স্বপদে বহাল থাকলেও সিনিয়র নায়েবে আমির আল্লামা মহিবুল্লাহ বাবুনগরীর স্থালাভিষিক্ত হয়েছেন হাটহাজারী মাদ্রাসার সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা আহমেদ দিদার কাসেমী।

এ ছাড়া মৃত্যু ও অন্যান্য কারণে কমিটি থেকে বাদ পড়েন কমবেশি ৩০ জন। কমিটিতে যুক্ত করা হয় নতুন প্রায় দেড়শ জনকে। কমিটিতে নায়েবে আমির করা হয়েছে ৪২ জনকে। যুগ্ম মহাসচিব ও সহকারী যুগ্ম-মহাসচিব ১৫ জনকে।

সাংগঠনিক ও সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে আটজন, অর্থ সম্পাদক ও সহকারী অর্থ-সম্পাদক আটজন, প্রচার ও সহকারী প্রচার সম্পাদক ১২ জন, আন্তর্জাতিক সম্পাদক ১৩ জন, সমাজ কল্যাণ ও সহ-সমাজ কল্যাণ সম্পাদক ১২ জন, শিক্ষা প্রশিক্ষণ সম্পাদক ছয়জন, আইন বিষয়ক সম্পাদক ও সহ-সম্পাদক ছয়জন, শিল্প বিষয়ক সম্পাদক ও সহ-সম্পাদক ছয়জন, তথ্য গবেষণা সম্পাদক সাতজন, দফতর সম্পাদক ও সহ- দফতর সম্পাদক আটজন, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক ও সহকারী সম্পাদক আটজন, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক ও সহ-সম্পাদক আটজন, ত্রাণ ও পুনর্বাসন সম্পাদক ও সহ-সম্পাদক সাতজন এবং কার্যকরী সদস্য ২৯ জন।

এদিকে হেফাজতে ইসলামের নেতৃত্বে আসা নিয়ে ইতিমধ্যে পাল্টাপাল্টি দুটি পক্ষ তৈরি হয়েছে। একপক্ষে রয়েছেন সংগঠনটির মহাসচিব জুনায়েদ বাবুনগরীর অনুসারীরা। আহমদ শফীর ছেলে আনাস মাদানীর অনুসারীরা।

মাদানীর অনুসারীদের দাবি, আল্লামা শফী নতুন কমিটির অনুমোদন দিয়ে গেছেন। এই কমিটি বাস্তবায়ন করা হবে।

আল্লামা বাবুনগরীর অনুসারীরা এই দাবি প্রত্যাখ্যান করে বলছেন, এক মাসের মধ্যে কাউন্সিল ডেকে হেফাজতের নতুন আমির নির্বাচন করা হবে। প্রায় তিন মাস ধরে দেশের অন্যতম প্রভাবশালী কওমি মাদ্রাসা হাটহাজারী দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম-এ অস্থিরতা চলছে।

গেল জুলাই মাসে এই মাদ্রাসার সহকারী মহাপরিচালকের পদ থেকে জুনায়েদ বাবুনগরীকে সরিয়ে দেওয়া হয়।

এরপর থেকেই হাটহাজারী মাদ্রাসার মহাপরিচালক ও হেফাজত প্রধান আহমদ শফীর সন্তান আনাস মাদানীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকেন বাবুনগরীর অনুসারীরা।

তাদের দাবি, আহমদ শফীকে ভুল বুঝিয়ে বাবুনগরীকে সহকারী মহাপরিচালকের পদ থেকে সরিয়েছেন আনাস মাদানী।

এই দ্বন্দ্বের জেরে গত বুধবার মাদ্রাসায় ব্যাপক ছাত্রবিক্ষোভ ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। সেদিনই মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটিরি জরুরি সভা ডেকে আনাস মাদানীকে বহিষ্কার করা হয়।

পরদিন বৃহস্পতিবার আহমদ শফী মাদ্রাসার মহাপরিচালকের পদ ছাড়েন। শুক্রবার মারা যান তিনি। আনাস মাদানীর অনুসারীরা দাবি করছেন, হেফাজতের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা চিহ্নিত একটি গোষ্ঠী কূট কৌশলে আল্লামা আহমদ শফীর ছেলেকে মাদ্রাসা থেকে সরিয়ে দিয়েছে। তার বহিষ্কার অবৈধ।

এদিকে বাবুনগরীর অনুসারীরা দাবি করে আসছেন, সরকারঘনিষ্ঠ ব্যক্তিদের প্ররোচনায় হাটহাজারী মাদ্রাসায় বিশৃঙ্খলা তৈরির চেষ্টা করছেন আনাস মাদানী। তাদের দাবি অসুস্থতার কারণেই স্বেচ্ছায় মহাপরিচালকের পদ ছেড়ে দিয়েছিলেন আহমদ শফী।

এদিকে কাউন্সিল ডেকে হেফাজতে ইসলামের নতুন আমির নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মহাসচিব বাবুনগরী ও তার অনুসারীরা। বিরোধীরা বলছেন, তথাকথিত কাউন্সিল ডেকে মরহুম আহমদ শফীকে হেনস্তাকারীদের নেতৃত্বে আনার চেষ্টা চলছে।

এ অবস্থায় পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন হাটহাজারী মাদ্রাসার নিয়ন্ত্রণকে কেন্দ্র করে শুরু হওয়া দ্বন্দ্ব শেষ পর্যন্ত হেফাজতে ইসলামে বিভক্তির রেখা টানতে পারে।

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

ছি! কীভাবে এই দৃশ্যটি আমি দেখি! ফোনে ফোনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া সেই নির্মম... আরও পড়ুন

ফোনে ফোনে সামাজিক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভাইস-প্রেসিডেন্ট বিতর্কের সময় কোথা থেকে এক বেরসিক মাছি উড়ে এসে জুড়ে বসলো,... আরও পড়ুন

হাওরের রুপ উপভোগ করতে কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক দেখতে যেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ... আরও পড়ুন

ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।