সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু

হত্যা প্রমাণ হলেই মৃত্যুদন্ড

সোমবার, ৬ আগস্ট, ২০১৮ ০৯:০২:২১ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  

রিডার::ফরিদ হোসেন
প্রস্তাবিত সড়ক পরিবহন আইনে বেপরোয়া গাড়ি চালনার কারণে প্রাণহানিতে সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের কারাদন্ডের বিধান রাখা হয়েছে। তবে হত্যা প্রমাণিত হলে ফৌজদারি দন্ডবিধি অনুযায়ী দায়ীদের মৃত্যুদন্ড দেওয়া যাবে।

এ ক্ষেত্রে মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে প্রমাণ করতে হবে হত্যার উদ্দেশেই চালক দুর্ঘটনা ঘটিয়েছেন।

আজ সোমবার মন্ত্রিসভায় সড়ক নিরাপত্তা আইনের চূড়ান্ত খসড়া অনুমোদনের পর আইনমন্ত্রী আনিসুল হক জানান, দন্ডবিধির ৩০৪(খ) ধারায় আগে পাঁচ বছর সাজার কথা থাকলেও ১৯৮৫ সালে তা কমিয়ে তিন বছর করা হয়।

এখন সড়ক পরিবহন আইন পাস হলে দুর্ঘটনার জন্য নতুন আইনের আওতায় সর্বোচ্চ পাঁচ বছর সাজা দেওয়া যাবে। তবে তদন্তে ভিন্ন তথ্য পাওয়া গেলে দন্ডবিধির ৩০২ এবং ত্রেমতে ৩০৪ ধারা এই আইনেও প্রযোজ্য হবে।

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘যদি দেখা যায়, চালক হত্যা করেছে তবে ৩০২ ধারা অনুযায়ী বিচার হবে। কিন্তু মনে রাখতে হবে তদন্ত সাপেক্ষে যখন ভিন্ন তথ্য পাওয়া যায়। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হলেই ৩০২ ধারায় বিচার হবে না। তদন্ত এবং তথ্যের উপর নির্ভর করে এটা কোন খাতে যাবে। সেটা তদন্ত যারা করবেন তারাই ঠিক করবেন। যদি তদন্তে দেখা যায় এটা স্বাভাবিক সড়ক দুর্ঘটনা নয়, এখানে ড্রাইভার যাকে মেরেছে, তথ্য-উপাত্ত পাওয়ার পরে যদি দেখা যায় সেটা হত্যা হয়েছে তাহলে (দন্ডবিধির) ৩০২ ধারা এবং হত্যাটা স্বেচ্ছায় না করে থাকলে ৩০৪ ধারায় বিচার করা হবে।’

৩০২ ধারা অনুযায়ী হত্যা প্রমাণ করতে হলে তদন্ত কর্মকর্তাকে ‘ইনটেনশনটাও’ প্রমাণ করতে হবে জানিয়ে আইনমন্ত্রী বলেন — দুর্ঘটনায় কেউ যদি গুরুতর আহত হন বা মারা যান তাহলে শাস্তি হচ্ছে পাঁচ বছর।

গুরুত্বপূর্ণ মামলাগুলো দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তর করা হয় জানিয়ে আনিসুল হক বলেন, রমিজ উদ্দিনের (শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজ) দুই শিার্থী নিহতের ঘটনায় তদন্ত শেষ হলে তা দ্রুত বিচার আইনের অধীনে বিচার করা হবে।

সংসদে পাসের আগে নতুন সড়ক পরিবহন আইন অধ্যাদেশ আকারে কার্যকরের কোনো পরিকল্পনা সরকারের নেই বলে জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, আইনটি পাসের জন্য কবে সংসদে কবে যাবে তা সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয় বলতে পারবে। মন্ত্রিসভায় আলাপ-আলোচনা হয়েছে এটা অর্ডিনেন্স (অধ্যাদেশ) করা হবে না, এটা পার্লামেন্টের মাধ্যমে পাস হবে।’

সংসদের মাধ্যমে পাস করা হলে এই আইন নিয়ে আরও আলোচনার সুযোগ পাওয়া যাবে বলে জানান আইনমন্ত্রী। সড়ক পরিবহন আইনে দুর্ঘটনায় প্রাণহানিতে সর্বোচ্চ সাজা পাঁচ বছর রাখায় নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রদের দাবি পূরণ হয়েছে কি না, সেই প্রশ্নে আইনমন্ত্রী বলেন, ‘তাদের দাবি নিশ্চয়ই পূরণ হয়েছে। কারণ এই যে ভ্রান্ত একটা ধারণা ছিল এখানে হত্যা প্রমাণিত হলেও দন্ডবিধির ৩০২ বা ৩০৪ ধারা প্রযোজ্য হবে না, সেই জিনিসটা আজকে দূর হল। আমার মনে হয়, (নতুন আইনে) যে অপরাধকে আমরা পাঁচ বছরের আওতায় এনেছি তা যথেষ্ট।’

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।