সৌদি রাজতন্ত্র ভাঙ্গতে প্রবাসীদের রাজনৈতিক দল গঠন

রিডার::সৌদি আরব

বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০৭:১৬:৫২ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
রাজ সিংহাসনে পদাসীন

সৌদি আরবের বর্তমান বাদশাহ সালমান বিন আবদুলাজিজ আল সৌদের রাজ সিংহাসনে পদাসীন হওয়ার আগে যাঁরা সৌদি রাজপরিবারের অঢেল সুবিধা ভোগ করছিল, তাদের অনেকেই বাদশাহের আমলে বঞ্চিত কিংবা দেশছাড়া কিংবা দুনিয়া থেকে জোরপূর্বক বিদায় নিতে হয়েছে।

আর যাঁরা দেশ ছেড়ে পালিয়ে বাঁচতে পেরেছেন, তাদের অনেকে এখন সৌদি রাজপরিবারের বিরুদ্ধে একাট্টা হওয়ার চেষ্ঠা চালাচ্ছেন।

এদের কেউ আছেন যুক্তরাজ্যে, কেউ আমেরিকা, কানাডা বা অন্য কোনো দেশে। সকলেই সৌদি আরব থেকে নির্বাসিত। সম্প্রতি তারা সকলে মিলে একটা রাজনৈতিক দল গঠন করেছেন।

ডয়েচে ভ্যালে বলছে, যুক্তরাজ্যে নির্বাসিত সৌদি মানবাধিকার কর্মী ইয়াহিয়া আসিরি জানিয়েছেন, তাদের লক্ষ্য সৌদি আরবে গণতন্ত্রিক সরকার প্রতিষ্ঠা করা।

এই নতুন দলের নাম রাখা হয়েছে ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি পার্টি।

দলের তরফে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সৌদি আরবে সরকার সহিংসতা ও দমননীতি নিয়ে চলেছে। রাজনৈতিক কর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে অযথা ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তাদের মেরে ফেলাও হচ্ছে।

আসিরি হলেন বিমান বাহিনীর সাবেক অফিসার। তিনি বলেছেন, খুব সংকটজনক সময়ে এই দল গঠন করা হলো। দলের মুখপাত্র ও যুক্তরাজ্যের শিক্ষাকর্মী এম আল-রশিদ জানিয়েছেন, বর্তমানে ক্ষমতাসীন রাজ-পরিবারের বিরুদ্ধে তাদের কোনো শত্রুতার সম্পর্ক নেই। কিন্তু সরকারি দমন সমানে বাড়ছে। তাই এটাই দল গঠনের পক্ষে সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সময়।

অশীতিপর বাবা বাদশাহ সালমান কার্যত দেশের ক্ষমতা প্রিয় ছেলের হাতেই তুলে দিয়েছেন বলে অনেকে মনে করেন। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় ছাড়াও তিনি পেট্রোলিয়াম কোম্পানি আরামকো ও দেশের অর্থনৈতিক সংস্কারের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। উপ প্রধানমন্ত্রী পদও তার দখলে ছিল।

বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, এই নতুন রাজনৈতিক দল সৌদির শাসকদের সমস্যায় ফেলে দিতে পারে। কারণ, এখন অশোধিত তেল বিক্রি করে আয় অনেকটাই কমেছে। করোনার কারণে আগের চাহিদা নেই বলে এই অবস্থা। তার ওপর তারা জি২০ শীর্ষ সম্মেলনও আয়োজন করছেন। নভেম্বরে এই সম্মেলন হবে। তাছাড়া ভাবী রাজা ও বর্তমানে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানকে নিয়ে নানা ধরনের প্রশ্ন উঠছে।

অভিযোগ, তিনি তার বিরোধীদের নানা কারণ দেখিয়ে গ্রেফতার করেছেন। ২০১৮তে সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যাতে তার ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠছে। সৌদি আধিকারিকরা অবশ্য যুবরাজের ভূমিকার কথা অস্বীকার করেছেন। তার সংস্কার কর্মসূচি নিয়েও সৌদিতে বিতর্ক হচ্ছে।

এই অবস্থায় ৮৪ বছর বয়সী রাজা সালমান জাতিসংঘে ভিডিও-ভাষণ দিয়েছেন। সেখানে তিনি ইরানের কঠোর সমালোচনা করেছেন। তার অভিযোগ, ইরান সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ চালিয়ে শান্তিভঙ্গ করছে।

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প  একজন যোদ্ধা এবং তিনি তাঁর দেশকে দারুণ ভালোবাসেন বলে মনে করছেন... আরও পড়ুন

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

ছি! কীভাবে এই দৃশ্যটি আমি দেখি! ফোনে ফোনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া সেই নির্মম... আরও পড়ুন

ফোনে ফোনে সামাজিক

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।