একাদশ জাতীয় সংসদের নির্বাচনের ফলাফল

রিডার:: ঢাকা

সোমবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০২:১০:৩২ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৯৮টি কেন্দ্রের ফলাফল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। একজন প্রার্থীর মৃত্যুতে গাইবান্ধা-৩ আসনের নির্বাচন পিছিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি তিনটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিতে আটকে গেছে আর একটি আসনের ফলাফল।

গাজীপুর-১: আ ক ম মোজাম্মেল হক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
গাজীপুর-২: জাহিদ আহসান রাসেল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
গাজীপুর-৩: মুহাম্মদ ইকবাল হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
গাজীপুর-৪: সিমিন হোসেন রিমি (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
গাজীপুর-৫: মেহের আফরোজ চুমকি (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ফরিদপুর-১: মনজুর হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ফরিদপুর-২: সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ফরিদপুর-৩: ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ফরিদপুর-৪: মজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন (স্বতন্ত্র প্রার্থী)
গোপালগঞ্জ-১: মুহাম্মদ ফারুক খান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
গোপালগঞ্জ-২: শেখ ফজলুল করিম সেলিম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
গোপালগঞ্জ-৩: শেখ হাসিনা (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নরসিংদী-১: নজরুল ইসলাম (হিরু) (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নরসিংদী-২: ডা. আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলীপ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নরসিংদী-৩: জহিরুল হক ভূইয়া মোহন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নরসিংদী-৪: নুরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নরসিংদী-৫: রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মাদারীপুর-১: নুর ই আলম চৌধুরী লিটন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মাদারীপুর-২: নৌ মন্ত্রী শাহজাহান খান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মাদারীপুর-৩: আব্দুস সোবহান গোলাপ(আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কিশোরগঞ্জ-১: সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কিশোরগঞ্জ-২: নূর মোহাম্মদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কিশোরগঞ্জ-৩: মুজিবুল হক চুন্নু (জাতীয় পার্টি, লাঙ্গল)।
কিশোরগঞ্জ-৪: রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কিশোরগঞ্জ-৫: আফজাল হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কিশোরগঞ্জ-৬: নাজমুল হাসান পাপন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মাগুরা-১: সাইফুজ্জামান শিখর (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মাগুরা-২: বীরেন শিকদার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
জামালপুর-১: আবুল কালাম আজাদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
জামালপুর-২: ফরিদুল হক খান দুলাল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
জামালপুর-৩: মির্জা আজম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
জামালপুর-৪: মুরাদ হাসান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
জামালপুর-৫: ইঞ্জিনিয়ার মোজাফ্ফর হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
রাজশাহী-১: ওমর ফারুক চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
রাজশাহী-২: ফজলে হোসেন বাদশা (ওয়াকার্স পার্টি)।
রাজশাহী-৩: আয়েন উদ্দিন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
রাজশাহী-৪: এনামুল হক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
রাজশাহী-৫: মনসূর রহমান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নাটোর-১: শহিদুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নাটোর-২: শফিকুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নাটোর-৩: জুনাঈদ আহমেদ পলক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নাটোর-৪: আবদুল কুদ্দুস (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নওগাঁ-২: শহিদুজ্জামান সরকার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নওগাঁ-৬: ইসরাফিল আলম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বগুড়া-১: আব্দুল মান্নান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বগুড়া-৩: নুরুল ইসলাম তালুকদার (জাতীয় পার্টি, লাঙল)।
বগুড়া-৫: হাবিবর রহমান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বগুড়া-৪: মোশারফ হোসেন (বিএনপি, ধানের শীষ)
বগুড়া-৬: মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর (বিএনপি, ধানের শীষ)।
বগুড়া-৭: রেজাউল করিম বাবলু (স্বতন্ত্র)।
দিনাজপুর-১: মনোরঞ্জন শীল গোপাল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
দিনাজপুর-২: খালিদ মাহমুদ চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
দিনাজপুর-৩: ইকবালুর রহিম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
দিনাজপুর-৪: আবুল হাসান মাহমুদ আলী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
দিনাজপুর-৫: প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
দিনাজপুর-৬: শিবলী সাদিক (ধানের শীষ)।
সাতক্ষীরা-১: মুস্তফা লুৎফুল্লাহ (ওয়াকার্স পার্টি, নৌকা)।
সাতক্ষীরা-২: মীর মোস্তাক আহমেদ রবি (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সাতক্ষীরা-৩: আ ফ ম রুহুল হক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সাতক্ষীরা-৪: এসএম জগলুল হায়দার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নড়াইল-১: কবিরুল হক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নড়াইল-২: মাশরাফি বিন মর্তুজা (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মেহেরপুর-১: ফরহাদ হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মেহেরপুর-২: সাহিদুজ্জামান খোকন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুষ্টিয়া-১: আ কা ম সরওয়ার জাহান বাদশাহ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুষ্টিয়া-২: হাসানুল হক ইনু (মহাজোট, জাসদ-ইনু, নৌকা)।
খুলনা-২: শেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুষ্টিয়া-৩: মো. মাহবুবউল আলম হানিফ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুষ্টিয়া-৪: সেলিম আলতাফ জর্জ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
যশোর-১: শেখ আফিল উদ্দিন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
যশোর-২: নাসির উদ্দিন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
যশোর-৩: কাজী নাবিল আহমেদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
যশোর-৪: রণজিত কুমার রায় (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
যশোর-৫: স্বপন ভট্টাচার্য্য (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
যশোর-৬: ইসমাত আরা সাদেক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মাগুরা-১: সাইফুজ্জামান শিখর (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মাগুরা-২: বীরেন শিকদার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বাগেরহাট-৩: হাবিবুন নাহার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বাগেরহাট-৪: মোজাম্মেল হক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
খুলনা-১: পঞ্চানন বিশ্বাস (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
খুলনা-২: সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
খুলনা-৩: বেগম মুন্নুজান সুফিয়ান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
খুলনা-৪: আব্দুস সালাম মুর্শেদী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
খুলনা-৫: নারায়ণ চন্দ্র চন্দ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
খুলনা-৬: আকতারুজ্জামান বাবু(আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মেহেরপুর-১: ফরহাদ হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নেত্রকোণা-১: মানু মজুমদার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নেত্রকোণা-২: আশরাফ আলী খান খসরু (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নেত্রকোণা-৩: অসীম কুমার উকিল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নেত্রকোণা-৪: রেবেকা মোমেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নেত্রকোণা-৫: ওয়ারেসাত হোসেন বেলাল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ময়মনসিংহ-১: জুয়েল আরেং (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ময়মনসিংহ-২: শরীফ আহম্মেদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ময়মনসিংহ-৩: নাজিম উদ্দিন আহম্মেদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ময়মনসিংহ-৪: রওশন এরশাদ (জাতীয় পার্টি,লাঙ্গল)।
ময়মনসিংহ-৫: কেএম খালিদ বাবু (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ময়মনসিংহ-৬: কেএম খালিদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ময়মনসিংহ-৭: হাফেজ রুহুল আমিন মাদানী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ময়মনসিংহ-৮: ফখরুল ইমাম(মহাজোট প্রার্থী, লাঙ্গল)।
ময়মনসিংহ-৯: আনোয়ারুল আবেদীন খান তুহিন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ময়মনসিংহ-১০: ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ময়মনসিংহ-১১: কাজিমুদ্দিন আহম্মেদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
জামালপুর-৩: মির্জা আজম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
জামালপুর-৪: মুরাদ হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
রংপুর-৩: হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ (জাতীয় পার্টি, লাঙল)
রংপুর-৬: শিরিন শারমিন চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
লালমনিরহাট-১: মোতারহার হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
লালমনিরহাট-৩: জিএম কাদের (জাতীয় পার্টি, লাঙল)।
নীলফামারি-২: আসাদুজ্জামান নূর (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ঠাকুরগাঁও-১: রমেশ চন্দ্র সেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ঠাকুরগাঁও-২: দবিরুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
দিনাজপুর-৬: শিবলী সাদিক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ভোলা-১: তোফায়েল আহমেদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ভোলা-২: আজম মুকুল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ভোলা-৪: আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ভোলা-৩: নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
চাঁদপুর-৩: দীপু মনি (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কক্সবাজার-৪: শাহিনা আকতার চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ব্রাক্ষণবাড়িয়া-৪: আনিসুল হক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ব্রাক্ষণবাড়িয়া-২: এই আসনে ফলাফল স্থগিত আছে।
চট্টগ্রাম-৩: মাহফুজুর রহমান মিতা (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ব্রাক্ষণবাড়িয়া-৬: এ বি এম তাজুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
চট্টগ্রাম-১২: সামছুল হক চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
চট্টগাম-১: ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
চট্টগ্রাম-৪: দিদারুল আলম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ফেনী-১: শিরীন আখতার (জাসদ, নৌকা)।
নোয়াখালী-১: এইচ এম ইব্রাহিম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুমিল্লা-১: সুবিদ আলী ভুঁইয়া (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুমিল্লা-২ সেলিনা আহমদ মেরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুমিল্লা-৩: ইউসুফ আব্দল্লা হারুন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুমিল্লা-৪: রাজী মোহাম্মদ ফখরুল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুমিল্লা-৫: আব্দুল মতিন খসরু (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুমিল্লা-৬: আ ক ম বাহার উদ্দিন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুমিল্লা-৭: আলী আশরাফ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিলেট-১: এক আব্দুল মোমেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিলেট-২: মুকাব্বির খান (জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট)।
সিলেট-৩: মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিলেট-৪: ইমরান আহমদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিলেট-৫: হাফিজ আহমদ মজুমদার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিলেট-৬: নুরুল ইসলাম নাহিদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
হবিগঞ্জ-২: আবদুল মজিদ খান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
হবিগঞ্জ-৪: মাহবুব আলী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মৌলভীবাজার-১: শাহাব উদ্দিন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মৌলভীবাজর-২: সুলতান মোহাম্মদ মনসুর (জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট)।
মৌলভীবাজার-৪: আব্দুস শহীদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সুনামগঞ্জ-১: মোয়াজ্জেম হোসেন রতন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সুনামগঞ্জ-২: জয়া সেনগুপ্ত (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সুনামগঞ্জ-৩: এম এ মান্নান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সুনামগঞ্জ-৪: পীর ফজলুর রহমান (জাতীয় পার্টি, লাঙল)
সুনামগঞ্জ-৫: মুহিবুর রহমান মানিক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বরগুনা-১: ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বরগুনা-২: শওকত হাচানুর রহমান রিমন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বরিশাল-১: আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বরিশাল-২: শাহে আলম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বরিশাল-৩: গোলাম কিবরিয়া টিপু (জাতীয় পার্টি, লাঙ্গল)
বরিশাল-৪: পংকজ নাথ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বরিশাল-৫: জাহিদ ফারুক শামিম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
বরিশাল-৬: নাসরিন জাহান রতনা (জাতীয় পার্টি, লাঙ্গল)।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১: সামিল উদ্দীন আহমদ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২: আমিনুল ইসলাম (জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট, ধানের শীষ)।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩: হারুনুর রশিদ (জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট, ধানের শীষ)।
চুয়াডাঙ্গা-১: সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
চুয়াডাঙ্গা-২: আজগার টগর (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
গাইবান্ধা-১: শামীম হায়দার পাটোয়ারী (জাতীয় পার্টি, লাঙ্গল)।
গাইবান্ধা-২: মাহাবুব আরা বেজম গিনি (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
গাইবান্ধা-৪: মনোয়ার হোসেন চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
গাইবান্ধা-৫: মো. ফজলে রাব্বি মিয়া (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ঝালকাঠি-১: বজলুল হক হারুন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
ঝালকাঠি-২: আমির হোসেন আমু (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুড়িগ্রাম-১: আছলাম হোসেন সওদাগর (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুড়িগ্রাম-২: পনির উদ্দিন আহমেদ (জাতীয় পার্টি, লাঙ্গল)।
কুড়িগ্রাম-৩: এমএ মতিন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
কুড়িগ্রাম-৪: মো. জাকির হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
লক্ষ্মীপুর-১: আনোয়ার হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
লক্ষ্মীপুর-২: শহীদুল ইসলাম পাপুল (স্বতন্ত্র প্রার্থী)।
লক্ষ্মীপুর-৩: এ কে এম শাহজাহান কামাল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
লক্ষ্মীপুর-৪: আব্দুল মান্নান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মানিকগঞ্জ-১: নাঈমুর রহমান দুর্জয় (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মানিকগঞ্জ-২: মমতাজ বেগম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মানিকগঞ্জ-৩: স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মুন্সীগঞ্জ-১: মাহী বি. চৌধুরী (মহাজোট প্রার্থী, বিকল্প ধারা)।
মুন্সীগঞ্জ-২: সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
মুন্সীগঞ্জ-৩: মৃণাল কান্তি দাস (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পাবনা-১: শামসুল হক টুকু (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পাবনা-২: আহমেদ ফিরোজ কবির (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পাবনা-৩: মকবুল হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পাবনা-৪: শামসুর রহমান শরিফ ডিলু (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পাবনা-৫: গোলাম ফারুক প্রিন্স (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পঞ্চগড়-১: মাজাহারুল হক প্রধান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পঞ্জগড়-২: নুরুল ইসলাম সুজন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পিরোজপুর-১: শ ম রেজাউল করিম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পিরোজপুর-২: আনোয়ার হোসেন মঞ্জু (জেপি)।
পিরোজপুর-৩: রুস্তম আলী ফরাজী (মহাজোট প্রার্থী, লাঙ্গল)।
রাজবাড়ী-১: কাজী কেরামত আলী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
রাজবাড়ী-২: জিল্লুল হাকিম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
শেরপুর-১: আতিউর রহমান আতিক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
শেরপুর-২: মতিয়া চৌধুরী (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
শেরপুর-৩: প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল চান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিরাজগঞ্জ-১: মোহাম্মদ নাসিম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিরাজগঞ্জ-২: হাবিবে মিল্লাত মুন্না (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিরাজগঞ্জ-৩: আব্দুল আজিজ (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিরাজগঞ্জ-৪: তানভীর ইমাম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিরাজগঞ্জ-৫: আব্দুল মমিন মন্ডল (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
সিরাজগঞ্জ-৬: হাসিবুর রহমান স্বপন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
টাঙ্গাইল-১: আব্দুর রাজ্জাক (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
টাঙ্গাইল-২: তানভীর হাসান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
টাঙ্গাইল-৩: আতাউর রহমান খান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
টাঙ্গাইল-৪: মোহাম্মদ হাসান ইমাম খান (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
টাঙ্গাইল-৫: ছনোয়ার হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
টাঙ্গাইল-৬: আহসানুল ইসলাম টিটু (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
টাঙ্গাইল-৭: একাব্বর হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
টাঙ্গাইল-৮: জোয়াহেরুল ইসলাম (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
নারায়ণগঞ্জ-৫: এ কে এম সেলিম ওসমান (জাতীয় পার্টি)।
শরীয়তপুর-১: ইকবাল হোসেন (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
পার্বত্য বান্দরবান: বীর বাহাদুর উ শৈ সিং (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
খাগড়াছড়ি: কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।
রাঙামাটি: দীপংকর তালুকদার (আওয়ামী লীগ, নৌকা)।

 

 

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

একাদশ জাতীয় নির্বাচন: ৯ শতাধিক কেন্দ্রে কেউই ভোট দেয়নি বিএনপিকে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নয় শতাধিক ভোটকেন্দ্রে বিএনপির প্রার্থীদের কেউই ভোট পাননি। এছাড়াও সহস্রাধিক ভোটকেন্দ্রে এক বা দুইটি করে ভোট পেয়েছে বিএনপির ধানের শীষ প্রতীক। ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা গেছে ৯২৯টি কেন্দ্রে কোন ভোটার বিএনপিকে ভোট দেননি। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ওয়েবসাইটে... আরও পড়ুন

ওয়েবসাইটে নির্বাচন

একাদশ সংসদ নির্বাচন শতভাগ ভোট ২১৩ কেন্দ্রে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শতভাগ ভোট পড়েছে ২১৩টি কেন্দ্রে। নির্বাচনে ১১টি কেন্দ্রে ১০ শতাংশের কম ভোট পড়েছে। সম্প্রতি ওয়েবসাইটে নির্বাচন কমিশন প্রকাশিত কেন্দ্রভত্তিক ফলাফল বিশ্লেষণে এতথ্য পাওয়া গেছে। এবারের নির্বাচনে ৪০ হাজারেরও বেশি ভোট কেন্দ্র ছিল। এ বিষয়ে জানতে চাইলে... আরও পড়ুন

নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব

একাদশ সংসদ নির্বাচনে সরকারি দলের ব্যয় দেড় লাখ টাকা

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ দেড় কোটি টাকা টাকা ব্যয় হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের কাছে নির্বাচনী ব্যয়ের হিসাব জমা দেওয়ার পর এ তথ্য উঠে এসেছে। আজ রবিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার কাছে দলের নির্বাচনী ব্যায়ের হিসাব জমা... আরও পড়ুন

প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের।এবার

একাদশ জাতীয় সংসদ::৩০ জানুয়ারির মধ্যে সব প্রার্থীর ব্যয়ের হিসাব

আগামী ৩০ জানুয়ারির মধ্যে ৬৬ রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে ব্যয়ের হিসাব জমা দিতে হবে সদ্য শেষ হওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের। এবার নির্বাচনে প্রার্থীর জন্য ভোটার প্রতি গড় ব্যয় ১০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ব্যয় ২৫ লাখ টাকা নির্ধারণ করা... আরও পড়ুন