মুহিতকে ইসির মানা

রিডার::ঢাকা

বৃহস্পতিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ ১০:১৪:৫৭ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিতে বারণ করেছে ইসি

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতকে একটি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিতে বারণ করেছে ইসি। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অপর এক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে অনাপত্তি জানানো হয়।

আগামী ১৭ নভেম্বর ঢাকায় ‘ভাই গিরীশচন্দ্র সেন মিউজিয়াম, পাঁচদোনা, নরসিংদী’ প্রকল্পের উদ্বোধন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। এ অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকার কথা।

অনুষ্ঠানের অনাপত্তি চেয়ে ইসির কাছে চিঠি দেয় অনুষ্ঠানের আয়োজক সংগঠন ঐতিহ্য অন্বেষণ।আজ বৃহস্পতিবার ইসির উপসচিব মো. আতিয়ার রহমানের সই করা চিঠিতে ঐতিহ্য অন্বেষণকে জানানো হয়, অনুষ্ঠানটি অরাজনৈতিক হওয়ায় ইসি অনুষ্ঠানের বিষয়ে অনাপত্তি দিয়েছে।

 

তবে অর্থমন্ত্রী ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকতে পারবেন না বলে ইসি সিদ্ধান্ত দিয়েছে।

তবে ওই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি অরাজনৈতিক হওয়ায় অর্থমন্ত্রীকে বাদ দিয়ে তা যথারীতি অনুষ্ঠিত হতে পারবে।

অন্যদিকে আগামী ৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসন একাডেমিতে ১০৭, ১০৮ এবং ১০৯তম আইন ও প্রশাসন কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতির বিষয়ে ইসি অনাপত্তি জানিয়েছে।

 

 

ভোট ৩০ ডিসেম্বরই

আগামী ৩০ ডিসেম্বরই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ভোট পেছানোর জন্য জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আবেদন, না পেছানোর জন্য ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের যুক্তি এবং নিজেদের সুবিধা-অসুবিধা বিচার বিশ্লেষণ করে আজ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, বিভিন্ন অসুবিধা থাকা সত্ত্বেও পাঁচ সদস্যর কমিশনের দুইজন ভোট কয়েকদিন পেছানোর পক্ষে ছিলেন। কিন্তু অপর এক নির্বাচন কমিশনার জানুৃয়ারিতে দেশের উত্তরাঞ্চলে ব্যাপক শীত ও বরফ পড়ার আশঙ্কার কথা জানিয়ে বিপক্ষে মত দেন। ওই কমিশনারের যুক্তি ছিল, প্রচন্ড ঠান্ডা ও কুয়াশার কারণে ভোটারদের ব্যালট পেপার দেখতে সমস্যা হবে।

এই মতের পক্ষে বাকি দুইজন সম্মতি দেন। এই অবস্থায় তিনজন কমিশনারের সংখ্যাগরিষ্ঠতার মতামতের ভিত্তিতে নির্বাচন কমিশন ভোট না পেছানোর পক্ষেই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে।

আজ সকালে প্রধান নির্বাচন কমিশার (সিইসি) কে এমন নুরুল হুদার সভাপতিত্বে ১১টা থেকে ১২ পর্যন্ত এক ঘন্টা বৈঠক করে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। বৈঠকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার ছাড়াও অন্যান্যা কমিশনারসহ নির্বাচন কমিশন সচিব উপস্থিত ছিলেন।

 

আরও পড়ুন

 

পরে বিকেল সোয়া চায় ইসির মিডিয়ার সেন্টারে প্রেস বিফ্রিং-এ সচিব বলেন, বুধবার ঐক্যফ্রন্টের নেতৃবৃন্দ কমিশনের নিকট এসে বেশ কিছু দাবি উপস্থাপন করেছে। সেজন্য বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশন তাদের দাবিগুলো পর্যালোচনা করেছেন এবং নিজেদের ভেতরে বৈঠক করেছেন।

সচিব বলেন, বৈঠক করে কমিশনারেরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে, জানুয়ারি মাসে বেশ কয়েকটি আইনী ও সাংবিধানিক বিষয় আছে। যা হাতে যথেষ্ট সময় নিয়ে কাজগুলো করতে হবে। যেমন-পুননির্বাচন, উপনির্বাচন, নির্বাচনে অনিয়ম হলে তদন্ত করা, গেজেট প্রকাশ করা, নব নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ গ্রহণ ইত্যাদি।

এছাড়াও বিশ্ব ইজতেমা জানুয়ারি দ্বিতীয় এবং তৃতীয় সপ্তাহে অনুষ্ঠিত হবে। এত প্রায় ৩০ থেকে ৪০ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসল্লি অংশ নিয়ে থাকেন এবং আইন শৃঙ্খলাবাহিনীর লক্ষাধিক সদস্য মোতায়েন থাকেন। সব দিক বিবেচনা করে এবং চুলচেরা বিশ্লেষণ করে ৩০ ডিসেম্বরের পরে নির্বাচন পেছানোর বিষয়টি ইসির কাছে যথেষ্ট যুক্তিযুক্ত এবং বাস্তব সম্মত না হওয়ায় নির্বাচন পেছানের আর কোনো সুযোগ নেই বলে ইসি সিদ্ধান্ত দিয়েছে।এ অবস্থায় ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৩০ ডিসেম্বরই জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, বিদেশি পর্যবেক্ষক নয়, আমরা এদেশের নাগরিক -১০ কোটি ৪১ লাখ ভোটার, তাদের বিষয়গুলো আগে বিবেচনা করব। তবে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের সবসময় আমরা স্বাগত জানাই।

গত বুধবার জাতীয় ঐক্যফন্টের নেতারা নির্বাচন কমিশনের সাথে বৈঠকে যে ১১ টি দাবি জানায় তার প্রথমটিই ছিল ভোট পিছিয়ে দেয়ার। ঐক্যফ্রন্ট লিখিতভাবে জানায়, নির্বাচন কমিশনের পরিবর্তিত তফসিলও আমরা প্রত্যাখ্যান করছি। নির্বাচন এক মাস পিছিয়ে দেয়ার যে দাবি আমরা করেছিলাম, সেই দাবিতে আমরা অটল আছি।

জানুয়ারি মাসের তৃতীয় সপ্তাহে নির্বাচন হলে সেটা বিদ্যমান আইন এবং সাংবিধানের সাথে কোনো রকম সাংঘর্ষিক পরিস্থিতি তৈরি করে না। উপরন্তু সেই ক্ষেত্রে স্কুলগুলোর বার্ষিক পরীক্ষা নির্বিঘ্নে শেষ করা, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গ্রেফতারকৃত নেতা-কর্মীরা মুক্ত হয়ে নির্বাচনী কাজে যুক্ত হওয়া, বড়দিনের ছুটি কাটিয়ে দেশের খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের নির্বাচনী কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ এবং বিদেশি পর্যবেক্ষকদের দেশে আসার ক্ষেত্রে সহজ পথ তৈরি হয়।

এ দাবির বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনের কাছে আওয়ামী লীগের বক্তব্য ছিল, বিদেশী পর্যবেক্ষকদের সুবিধা- অসুবিধা বিবেচনায় নিয়ে কোনো দেশের ভেটের তারিখ নির্ধারণ হতে পারে না। জানুয়ারিতে ভোট করতে গেলে আইন অনুয়ায়ি নতুন ভোটার অন্তর্ভুক্ত করার বাধ্যবাধকতা আছে। এছাড়া জানুয়ারিতে স্কুল খুলে যাওয়া, বই বিতরণ বই বিতরণ, ইজতেমা এসব কারণেও ভোট পেছানো ঠিক হবে না।

বুধবারের বৈঠকে ঐক্যফ্রন্টর ইভিএম ব্যবহার না করার এবং গ্রেফতারি ক্ষমতাসহ সেনা মোতায়েনের দাবি জানিয়েছিল। এ দুই দাবি সম্পর্কে গতকাল সচিব বলেন, ‘শহরাঞ্চলে স্বল্প পরিসরে ইভিএম ব্যবহারের কমিশনের নেয়া সিদ্ধান্ত এখনও বহাল আছে। আর সেনাবাহিনী মোতায়েনের পক্ষেই কমিশনের সিদ্ধান্ত রয়েছে। তবে কীভাবে, কবে মোতায়েন হবে, তা সেনাবাহিনীর সঙ্গে আলাপ করে কমিশন পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে।’

সেনাবাহিনী মোতায়েন সম্পর্কে তিনি আরো বলেন, ‘সকালে আমি বলেছিলাম. ২ থেকে ১০ দিনের মধ্যে সেনাবাহিনী নামবে। আসলে আমি বিষয়টি বুঝতে চেয়েছিলাম সহকারি রির্টানিং কর্মকর্তারারা সেনাবাহিনীর জন্য ১০ দিন আগে থেকে তাদের জন্য বাসস্থানের ব্যবস্থা করবেন। তবে নির্বাচনে কবে কখন কীভাবে সেনা মোতায়েন করা হবে সে বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।’

এক প্রশ্নের জবাবে হেলালুদ্দীন বলেন, নির্বাচন কমিশন একটা স্বাধীন সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। নিজের সিদ্ধান্ত নিজেই গ্রহণ করতে পারে। অন্য কারো সিদ্ধান্ত গ্রহণ কখনো করবে না। বিভিন্ন রাজনৈতিক দল যেহেতু স্টেক হোল্ডার বিভিন্ন বিষয়ে তারা ইসিকে পরামর্শ দিতে পারে।

সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে হেলালুদ্দীন বলেন, বিএনপি আগেই জানিয়েছে কোন কোন দল ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবেন। আওয়ামী লীগও জানিয়েছে কোন কোন দল নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবে। দলগুলো আলাদাভাবেও জানিয়েছে। আওয়ামী লীগ জোট থেকে কারা কারা নৌকা নিয়ে নির্বাচন করতে চান তা তিনি তাৎক্ষণিক জানাতে পারেননি। তবে সচিব বলেন, এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি এবং বিকল্প ধারা আওয়ামী লীগের জোটে নেই। যদিও গতকাল বিকালের পর চিঠি দিয়ে বিকল্পধারা নৌকা প্রতীকে ভোট করার ইচ্ছা পোষণ করেছে।

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Recommended for you

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা

মুহিতকে অনুসরন করবেন অর্থমন্ত্রী

বিদায়ী অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের কর্মপরিকল্পনা অনুসরণ করবেন বলে জানিয়েছেন নয়া অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। মুস্তফা কামাল বলেন, মন্ত্রণালয় পরিচালনায় যখনই প্রয়োজন হবে আমি তার (আবদুল মুহিত)... আরও পড়ুন

নিজেকে সৌভাগ্যবান

এখনতো আমার অবসর দরকার : মুহিত

শেখ হাসিনা সরকারের দুই মেয়াদে দায়িত্ব পালন করা অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত নিজেই মন্ত্রিসভা থেকে অবসর নিয়েছেন। আর এজন্য নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছেন তিনি। তিনি হাসতে হাসতে বলেন, সেটাও... আরও পড়ুন

প্রধানমন্ত্রীকে মান্য

মন্ত্রিসভায় যেতে চান মুহিত

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নতুন মন্ত্রিসভায় যোগ দিতে আহ্বান জানালে তিনি সাড়া দেবেন। কেননা তিনি সব সময় প্রধানমন্ত্রীকে মান্য করে চলেন। আজ মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ কার্যালয়ে নতুন... আরও পড়ুন

অবসরের দিন গুনছেন মুহিত

প্রায় সাত দশকের কর্মজীবনের ইতি টানতে যাচ্ছেন। অবসরে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলে জানিয়েছেন তিনি। আজ শনিবার রাজধানীর জাতীয় যাদুঘরে এক অনুষ্ঠানে এ কথা জানান তিনি। সুহেলী বিলকিস জালালের দুটি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের... আরও পড়ুন

কিবরিয়ার ছেলে ঐক্যফ্রন্টে!

দশ বছর বাদে দেশ আওয়ামী লীগ-বিএনপির নির্বাচনী চীরচেনা লড়াইয়ে সরগরম হতে শুরু করেছে।তার নতুন এক সংস্করণ দেখা দিল আজ  শনিবার। সাবেক অর্থমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতা শাহ এ এম এস কিবরিয়ার ছেলে রেজা কিবরিয়া জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসাবে নাম... আরও পড়ুন

সিলেট-১ (মহানগর ও

বড় ভাইয়ের দেয়া উপহারের টাকায় ছোট ভাইয়ের মনোনয়ন ফরম ক্রয়

সিলেট-১ (মহানগর ও সদর) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী হিসেবে গত কয়েক বছর ধরেই মাঠে রয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি এ কে আবদুল মোমেন। তিনি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের ছোট ভাই। গতকাল শুক্রবার বিকেলে অর্থমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ‘নির্বাচনী... আরও পড়ুন

সড়কে নৈরাজ্য

সড়কে নৈরাজ্য করলে কঠোর ব্যবস্থা:: মুহিত

সড়কে নৈরাজ্য সৃষ্টি করলে শক্ত হাতে তা দমন করা হবে বলে আন্দোলনকারীদের হুঁশিয়ার করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। আজ রবিবার সচিবালয়ে সাধারণ বীমা করপোরেশনে সরকারকে ৪০ কোটি টাকার চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘সড়কে নৈরাজ্য... আরও পড়ুন