বিশ্বজুড়ে আলোচিত ঘটনা

রিডার:: ইসরাত জাহান

সোমবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৮:২০:২৪ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
দিয়ে বেড়েছে পরাশক্তিদের

২০১৮ সালে কোরিয়া উপদ্বীপজুড়ে কমেছে অস্থিরতা, সিরিয়ায় থিতিয়ে এসেছে গৃহযুদ্ধ; তবুও শান্ত হয়নি বিশ্ব। উল্টো আরও নানা দিক দিয়ে বেড়েছে পরাশক্তিদের মুখোমুখি অবস্থান।

এক দেশের সঙ্গে আরেক দেশের ঠোকাঠুকি চলেছে সারা বছর জুড়ে।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে সংঘাতের দামামা আর নতুন অনিশ্চয়তা নিয়ে হাজির হচ্ছে আরো একটি বছর।

কোরিয়া উপদ্বীপে সুবাতাস, হরমুজ-এ উত্তাপ

কয়েক বছর ধরে উত্তর কোরিয়া আর দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যকার অস্থিরতায় কোরিয়া উপদ্বীপে উত্তেজনা আর যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার বৈরি সম্পর্ক সারাবিশ্বকে উদ্বেগে রাখলেও চলতি বছর এর অবসান হয়েছে।

কোরিয়া উপদ্বীপজুড়ে বয়ে গেছে মৈত্রীর সুবাতাস। দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার সুসম্পর্ক গড়ে ওঠার পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গেও উত্তর কোরিয়ার বৈরি সম্পর্ক এ বছর দূর হয়েছে ঐতিহাসিক সব বৈঠকের মধ্য দিয়ে।

 

 

কিন্তু উত্তরের অস্থিরতা কমলেও গনগনে উত্তাপ ছিল হরমুজ প্রণালীতে। বিশ্বের দেশগুলোর সঙ্গে সংঘাতের দামামা বাজিয়েছেন ট্রাম্প।

যুক্তরাষ্ট্র ও মিত্ররা ঠকছে এ অজুহাতে মেতে ইরানের সঙ্গে ২০১৫ সালে ছয় বিশ্ব শক্তির সই করা পরমাণু চুক্তি থেকে বেরিয়ে আসেন তিনি। তাতেই ক্ষান্ত হননি ট্রাম্প।

মিত্রদের অনুরোধ-আপত্তি অগ্রাহ্য করে তিনি তেহরানের ওপর পুরনো সব নিষেধাজ্ঞা আবার বহাল করেন।
বছরজুড়েই এ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের বাদানুবাদের খবর গুরুত্ব পায় আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে। ইসরায়েল ও সৌদি আরবের সঙ্গেও কথার লড়াই চলে তেহরানের।

বাণিজ্যযুদ্ধে দুই শক্তিধর দেশ

বিশ্বের সবচেয়ে বড় দুই অর্থনীতির দেশ চীন ও যুক্তরাষ্ট্র এ বছর শুল্ক নিয়ে সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে।

শুরুতেই আমদানি করা সোলার প্যানেল ও ওয়াশিং মেশিনে শুল্ক বসিয়ে বেইজিংয়ের উদ্বেগ বাড়িয়ে দেন। মেধাস্বত্ব আইনের লংঘনসহ চীনের বিরুদ্ধে অন্যায্য বাণিজ্য চর্চার অভিযোগ এনে পরের মাসেই আরও ১৩০০ চীনা পন্যে শুল্ক আরোপে তৎপর হন।

 

 

ওয়াশিংটনের পদক্ষেপের পাল্টায় এপ্রিলেই আমদানি কার ১২৮ মার্কিন পণ্যের ওপর ২৫ শতাংশ শুল্ক বসায় বেইজিং। জুনের মাঝামাঝিতে হোয়াইট হাউজে ৫০ বিলিয়ন ডলারের চীনা পণ্যে ২৫ শতাংশ শুল্কারোপ করে। এরপর অগাস্টে এবং সেপ্টেম্বরে ফের পাল্টাপাল্টি শুল্কারোপ কওে দুই দেশ।

পরে জি-২০ সম্মেলনের সময় দুই দেশের শীর্ষ পর্যায়ের বৈঠকে বাণিজ্য যুদ্ধে তিন মাসের বিরতি দিয়ে মধ্যস্থতা চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়; কিন্তু চীনের টেলিকম জায়ান্ট হুয়াওয়ের প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকর্তা আটকের ঘটনা বাড়িয়ে দেয় অস্বস্তি। শুরু হয় নতুন সংঘাত।

যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটদের উত্থান

গত নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে মধ্যবর্তী নির্বাচনের ফলে আবারও বিভক্ত কংগ্রেস পেয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ধরে রাখতে সক্ষম হয় ট্রাম্পের রিপাবলিকান পার্টি।

অপরদিকে, আট বছর পর নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভস এর নিয়ন্ত্রণ পায় ডেমোক্র্যাটরা। ফলে কিছুটা চাপে পড়েন ট্রাম্প।

 

 

নতুন বিল পাসের জন্য উভয় কক্ষের সম্মতি আগের মতো পাওয়ার পথ বন্ধ হয় তার। এমনকী বিভক্ত কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ স্বয়ং ট্রাম্পের ওপরই খড়গস্ত হওয়ার পটও প্রস্তুত হয়। তবে এতে মোটেও বিচলিত না হয়ে তার স্বভাবসুলভ গতিতেই চলেছেন ট্রাম্প।

কোহেন মামলা, শরণার্থী ইস্যুতে নাজেহাল ট্রাম্প

সাবেক ব্যক্তিগত আইনজীবী মাইকেল কোহেন মামলা নিয়ে ট্রাম্প এ বছর বেশ নাজেহালই হয়েছেন।

২০১৬ সালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে ট্রাম্প তার সঙ্গে সম্পর্ক থাকা নারীদের মুখ বন্ধ রাখতে অর্থ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন বলে কোহেনের অভিযোগ নিয়ে বিপাকে পড়েন তিনি।

 

 

অন্যদিকে, যৌন হয়রানির অভিযোগ তোলা পর্ন তারকা স্টর্মি ড্যানিয়েলসের করা মানহানির মামলা নিয়েও এ বছর বিপাকে ছিলেন ট্রাম্প।

মেক্সিকো সীমান্তে শরণার্থী প্রবেশে অতিরিক্ত কড়াকড়ি আর অবৈধ অভিবাসীদের তাড়ানো নিয়ে এ বছর তীব্র সমালোচনার শিকার হয়েছেন ট্রাম্প। বছরের শুরুতে অবৈধ অভিবাসীদের সুরক্ষা দেওয়ার আইন নিয়ে বিরোধের জেরে একদফা অচলও হয়ে পড়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় সরকার।

তাছাড়া, এবছর অবৈধ শরণার্থীদের কাছ থেকে তাদের শিশু সন্তানদের বিচ্ছিন্ন করে দেশ-বিদেশে নিন্দা কুড়িয়েছেন ট্রাম্প।

মার্কিন সরকারের অচলাবস্থা

বছরের একেবারে শেষে এসে মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের অর্থবরাদ্দ নিয়ে ট্রাম্পের একগুঁয়েমিতে ফের অচল হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের সরকার। মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য বাজেট বরাদ্দে পাঁচশ কোটি ডলার রাখার দাবি জানিয়েছিলেন ট্রাম্প।

 

 

প্রতিনিধি পরিষদে রিপাবলিকানরা তা অনুমোদন করলেও সিনেটের ডেমোক্র্যাটরা তাতে বাধ সাধায় ২১ ডিসেম্বর মধ্যরাতের পর সরকার আংশিক অচল হয়ে পড়ে। এ অচলাবস্থা দীর্ঘদিন হওয়ারও আশঙ্কা দেখা দেয়।

‘রক্তে রঞ্জিত’ সৌদি যুররাজের হাত

গত ২ অক্টোর তুরস্কের সৌদি কনস্যুলেটে সৌদি আরবের সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যাকান্ড নিয়ে এখনো আলোচনার অন্ত নেই। খুনের ঘটনায় সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দিকেই উঠেছে সন্দেহের তীর। তার হাত ‘খাসোগির রক্তে রঞ্জিত’ বলে সরাসরি অভিযোগ করেছে তুরস্ক।

সৌদি আরব প্রথম দিকে খাসোগির নিখোঁজের বিষয়ে কিছুই জানে না বলে দাবি করলেও আঙ্কারা ও পশ্চিমা মহলের চাপে পরে তারা কনস্যুলেটে তার হত্যাকান্ডের বিষয়টি স্বীকার করে।

 

 

এ ঘটনার জেরে পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গেও রিয়াদের কূটনৈতিক সম্পর্কে টানাপোড়ন দেখা যায়। সৌদি আরবে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক বিনিয়োগ সম্মেলন বয়কট করে বহু দেশ।

এ বছর সৌদি আরব সিনেমার দ্বার খোলা থেকে শুরু করে নারীদের গাড়ি চালনার অধিকার দেওয়াসহ অনেক কড়াকড়ি অবসান ঘটানোর মত বেশকিছু ইতিবাচক সংস্কারের কারণে প্রশংসা কুড়ালেও তাদের এ সব অর্জনই ম্লান করে দিয়েছে খাগির হত্যাকান্ড।

সিরিয়ায় আসাদের নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা

সিরিয়া যুদ্ধের ঘটনাপ্রবাহ এ বছর প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদেও পক্ষে মোড় নিয়েছে। জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) ও বিদ্রোহীদের হটিয়ে সিরিয়ার ৭০ শতাংশ অংশে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেন আসাদ। বাকি থেকে যায় কেবল ইদলিব।

 

 

বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে সিরিয়ার মিত্র রাশিয়া পরিচালিত বিমান হামলা এবং সিরিয়ার আরেক মিত্র দেশ ইরানের হাজার হাজার সেনার সমর্থনে বিদ্রোহীদের দমন করতে সক্ষম হয় সিরীয় সেনাবাহিনী।

গত ৩০ শে আগস্ট সিরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ঘোষণা করেন, সরকারের প্রধার লক্ষ্য ইদলিব ‘মুক্ত’ করা।

সাবেক রুশ গুপ্তচর হত্যাচেষ্টা নিয়ে উত্তেজনা

এ বছর মার্চে রাশিয়ার পক্ষত্যাগী গুপ্তচর সের্গেই স্ক্রিপাল ও তার মেয়ে ইউলিয়াকে যুক্তরাজ্যে সোভিয়েত আমলের নার্ভ এজেন্ট নোভিচক দিয়ে হত্যা চেষ্টা নিয়ে সংঘাতে জড়িয়েছে রাশিয়া-যুক্তরাজ্য।

রাশিয়ার বিরুদ্ধে স্ক্রিপাল ও তার মেয়েকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ উঠলেও তা অস্বীকার করে মস্কো। এরপরই শুরু হয় রুশ কূটনীতিক বহিষ্কারের হিড়িক। রাশিয়া এবং যুক্তরাজ্য পাল্টাপাল্টি কূটনীতিক বহিষ্কার করে।

 

যুক্তরাজ্যের পক্ষ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, অস্ট্রেলিয়াসহ ইউরোপের ২৫টি দেশে ১২০ জন রাশিয়ান কূটনীতিককে বহিষ্কার করলে পরিস্থিতি আরো জটিল আকার ধারণ করে। পাল্টা জবাবে ২৩ দেশর কূটনীতিককে বহিষ্কার করে রাশিয়া।

সের্গেই ও ইউলিয়া স্ক্রিপাল রার্ভ এজেন্টের আঘাত কাটিয়ে সুস্ধ হয়ে উঠলেও এ ধরনের ঘটনা বন্ধ হয়নি। যুক্তরাজ্যে ফের একই স্থানে নাভৃ এজেন্টে সংজ্ঞাহীন আরেক যুগলের খোঁজ মেলে। এ দফা একজনের মুত্যুও হয়।

কের্চ প্রণালীতে ইউক্রেইন-রাশিয়া উত্তেজনা

বছরের শেষে এসে রাশিয়া অধিকৃত ক্রিমিয়া উপদ্বীপের কের্চ-এ ইউক্রেইনের সঙ্গে রাশিয়ার উত্তেজনা উত্তাপ ছড়িয়েছে কের্চ প্রণালীতে ইউক্রেনীয় জাহাজ ও নাবিকদের আটকের ঘটনায় মস্কো-কিয়েভ উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

 

 

এর জেরে নেটো সম্মেলনের পর করণীয় ঠিক করতে বৈঠক করেন ইউরোপীয় নেতারা। উত্তেজনার কারণে এবচর ক্রিমিয়া উপদ্বীপে অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এস-ফোর হান্ড্রেড মোতায়েন করে রাশিয়া।

ওদিকে ক্রিমিয়ার পর মস্কো পুরো ইউক্রেইন দখলের মতলবে আঁটছে অভিযোগে ইউক্রেইনের প্রেসিডেন্ট পেত্রো পোরেশেঙ্কো আজোভ সাগরে নেটোকে যুদ্ধজাহাা পাঠানোর অনুরোধ জানান। সীমান্তবর্থী জেলাগুলোতেও জারি করেন সামরিক আইন।

ব্রেক্সিটে নাকাল মে

এ বছর ব্রেক্সিট নিয়ে বিরোধীদের পাশাপাশি নিজ দল এমরকী মন্ত্রিসভাতেও নাকাল হতে হয়েছে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী টেরেজা মে কে। এই চুক্তির বেশ কিছু বিষয় নিয়ে মে খুশি করতে পারেননি অনেককেই। যে কারণে চুক্তি নিয়ে পার্লামেন্টে ভোট ডেকেও পরে তা পিছিয়ে দিতে হয় তাকে।

 

 

নিজ দলে নেতৃত্ব নিয়ে সংকটে পড়ার পর মে আস্থাভোটে কোনোভাবে উৎওে গেলেও ২০১৯ সালে কার্যকর হতে যাওয়া ব্রেক্সিট কি শেষ পর্যন্ত একটি চুক্তির মাধ্যমে সম্পন্ন হবে, না চুক্তি ছাড়াই হবে তা এখনো স্পষ্ট হয়নি।

রোহিঙ্গা সংকটে বেকায়দায় সু চি

বছরজুড়েই আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রাধান্য পেয়েছে রোহিঙ্গা সংকট। মিয়ানমারের সেনাবাহিনী যে রাখাইনে গণহত্যাসহ অবর্নণীয় নির্যাতন চালিয়েছিল, এ বছর ফেব্রুয়ারিতে মেলে তার প্রমাণ।

সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের ওপর বর্বর নির্যাতনের প্রমাণ পায় জাতিসংঘ।

 

 

কিন্তু রাখাইনে ওই াভিযান নিয়ে শুরু থেকেই কিছু না বলা এবং রোহিঙ্গা সংকহ নিরসনে তেমন ভূমিকা না রাখতে পারায় অং সান সুচিকে যেমন তিরস্কারের মুখোমুখি হতে হয়েছে তেমনি বছরজুড়েই বেশ কয়েকটি দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থা একর পর এক তাকে দেওয়া পদক সম্মাননা ফিরিয়ে নিয়েছে।

 

ইমরান খানের ছক্কা

ঈানামা পেপার্সে প্রকাশিথ দুর্নীতির জেরে পাকিস্তানে নওয়াজ সরকারের পতনের পর ভোটে পাকিস্তানের ক্ষমতায় বসানো হয় দেশটির বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেট দলের অধিনায়ক আমরান খানকে। ক্রিকেটার থেকে প্রধানমন্ত্রী বনে যাওয়া আমরান খান তার প্রথম ভাষণেই ভারতেন সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নে তার আগ্রহের কথা জানিয়ে সমক সৃষ্টি করেন।

 

 

ব্লাসফেমী আইনে মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামি আসিয়া বিবি খালাসের ঘটনায় উগ্রপন্থিদের বিক্ষোভ দমনে ইমরান সরকারের কৌশলী ভূমিকাও এ বছর পশ্চিমাদের নজর কেড়েছে। তবে বছরের শেষে এসে ভারতের ক্ষমতাসীন দল ও যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে তার কড়া মন্তব্যও দেশ-বিদেশের গণমাধ্যমে খবর হয়েছে।

ওদিকে, ভারতে এবছর ৫টি বিধানসভা নির্বাচনে হেরে গিয়ে বড় ধরনের বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে বিজেপি। এতে দুশ্চিন্তায় পড়েছে বিজেপি।

কোটি মানুষের জন্য স্বাস্থ্যবীমা এবং বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু ভাস্কর্য বানানোর পরও মোদীকে আগামী বছরের লোকসভা নির্বাচন নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তাতেই থাকতে হচ্ছে।

শ্রীলংকায় রাজনৈতিক অস্থিরতা

দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে চলতি বছর বড় ধরনের রাজনৈতিক অস্থিরতা দেখা গেছে শ্রীলঙ্কায়। ক্ষমতা নিয়ে রেষারেষির একপর্যায়ে অক্টোবরে প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমসিংহকে বরখাস্ত করে এক সময়ের ঘনিষ্ঠ মিত্র মহিন্দ্রা রাজাপাকসেকে ওই পদে বসান প্রেসিডেন্ট মাইথ্রিপালা সিরিসেনা।

 

 

সিরিসেনার এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বিরোধী দলগুলো সম্মিলিতভাবে আদালতে গেলে সুপ্রিম কোর্ট সিরিসেনার সিদ্ধান্ত বাতিল করে দেয়।

পার্লামেন্টে বিশৃঙ্খলার মধ্যে আস্থা ভোটেও পরাজিত হন রাজাপাকসে। ডিসেম্বরে বিক্রমসিংহ ফের প্রধানমন্ত্রীর পদে ফিরলে দেশটির সাংবিধানিক সংকটের অবসান ঘটে।

বুড়ো হাড়ে ভেলকি

৯২ বছর বয়সে নির্বাচন করে ফের মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হয়ে এ বছর ভেলকি দেখিয়েছেন মাহাথির মোহাম্মদ। এ পথে নিজের পুরনো দলকে চয় দশক পর ক্ষমতাছাড়া করতেও দুইবার ভাবেননি তিনি।

 

 

দেশীয় একটি বিনিয়োগ তহবিল নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগই কাল হয়ে দাঁড়ায় এক সময় মাহাথিরের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত নাজিব রাজাকের।

থাই গুহায় জীবনের জয়গান

বিশ্বকাপ ফুটবলে মশগুল বিশ্ব। এর মধ্যেই জুনের শেষ সপ্তাহে এক গুহায় আটকে পড়ে ১২ কিশোর ও তাদের ফুটবল কোচ।

শ্বাসরুদ্ধকর অভিযানের মধ্য দিয়ে দীর্ঘদিন পর তাদেরকে অক্ষতভাবে উদ্ধার করতে পারাটাই ছিল এ বছরের সবচেয়ে আলোচিত ঘটনা।

 

 

নয় দিনের টানা অনুসন্ধানের পর গুহার ভেতর তাদের খোঁজ মেলে। এরপর হাজারো স্বেচ্ছাসেবক, উদ্ধারকর্মী ও বিশেষজ্ঞের তত্ত্ববধানে ১৭ দিন পর ওই কিশোর ফুটবলার ও তাদের কোচকে গুহা থেকে বাইরে নিয়ে আসা সম্ভব হয়।

স্টিফেন হকিংয়ের মৃত্যু

এ বছর ১৪ মার্চে ৭৬ বছর বয়সে মারা যান বিশ্বখ্যাত পদার্থবিজ্ঞানী স্টিফেন হকিং। সময় ও কৃষ্ণগহ্বর নিয়ে তত্ত্ব লেখা এবং সৃষ্টিতত্ত্বেও রহস্য নিয়ে কাজ করেছিলেন তিনি। তার মৃত্যুর মধ্য দিয়ে আধুনিক যুগের এক নক্ষত্রের পতন ঘটে।

 

 

মোটর নিউরন রোগে আক্রান্ত হয়ে হুইলচেয়ারে বন্দি ছিলেন স্টিফেন হকিং। তার এতদিন বেঁচে থাকাটাই ছিল বিস্ময়ের।

দুর্যোগ-দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মিছিল

এ বছরও বিশ্ব জুড়ে বড় ধরনের ভূমিকম্প, সুনামি, দাবানল, বন্যা ও বৃষ্টির দেখা ছিল।মার্চে রাশিয়ায় শপিং কমপ্লেক্সে অগ্নিকান্ডে নিহত হন ৬৪ জন।

জুনে ভেনেজুয়েলায় কারাকাসে নাইটক্লাবে পদদলনে মারা পড়ে ১৭ জন।

আবার আগস্টের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে কেরালায় দেখা যায় সর্বগ্রাসী বন্যা। এ মৃতের সংখ্যা ৩০০ ছাড়ায়।

সেপ্টেম্বরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয় ব্রাজিলের ২০০ বছরের পুরনো জাদুঘর।

অক্টোবরে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় আছড়ে পড়ে ঘূর্ণঝড় মাইকেল। ফ্লোরিডায় উপকূলবর্তী একটি শহরকে পুরোপুরি নিশ্চিহ্ন করে দিয়েছে এ ঝড়।

২০১৮ সাল বেশ কয়েকটি বিমান দুর্ঘটনারও সাক্ষী হয়েছে। নেপালে কাঠমুন্ডুর ত্রিভূবন বিমানবন্দরে ১২ মার্চ ইউএস-বাংলা এয়াললাইন্স এর দুর্ঘটনা এ বছর ঘটে যাওয়া অন্যতম বড় বিমান দুর্ঘটনা।

বছরের একবারে শেষ দিকে ২২ ডিসেম্বর ইন্দোনেশিয়ার আনাক ক্রাকাতাউ আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতে সৃষ্ট সুনামিতে প্রায় সাড়ে চারশ জন নিহত হয়।

 

 

 

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Recommended for you

সময় তিনি এমনটি

রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছেন মৌসুমী

নব্বই দশকের জনপ্রিয় নায়িকা মৌসুমী রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছেন।সম্প্রতি তাঁর মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘রাত্রির যাত্রী’ নিয়ে আলাপের সময় তিনি এমনটি জানান। তিন বারের চলচ্চিত্র পুরষ্কার প্রাপ্ত নায়িকা মৌসুমি বাংলা রিডারকে জানিয়েছেন, ‘মনোনয়ন... আরও পড়ুন

জিয়া পরিবারকে নিশ্চিহ্ন করার পরিকল্পনায় আ’লীগ নেই:: কাদের

জিয়া পরিবারকে বাংলাদেশের রাজনীতি থেকে নিশ্চিহ্ন করার কোনো পরিকল্পনা আওয়ামী লীগের নেই বলে জানিয়েছেন দলটির সাধরণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর ধানমন্ডি কার্যালয়ে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক... আরও পড়ুন

নৌকায় জায়গা না পেয়ে ধানের শীষ হাতে নিলেন গোলাম রনি

আওয়ামী লীগের সাবেক সাংসদ গোলাম মাওলা রনি বিএনপিতে যোগদান করেছেন। আজ সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় রনি বিএনপির চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে গিয়ে খোলশ পাল্টে নিলেন তিনি। এ সময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা... আরও পড়ুন