বিতর্কে ট্রাম্পকে থামাতে ‘চুপ করুন’ বললেন বাইডেন

রিডার::যুক্তরাষ্ট্র

বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০১:৫১:৪৩ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  

ডাকযোগে ভোট চলতি মাসের মাঝামাঝিতেই শুরু হয়েছে। মূল নির্বাচন শুরু নভেম্বরের ৩ তারিখে। তার আগে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনী ঐতিহ্য অনুযায়ী মুখোমুখি বিতর্কে অংশ নিয়েছেন রিপাবলিকান ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং  ডেমোক্রেট জো বাইডেন।

তর্কের উত্তাপে যেন মঞ্চ গুড়িয়ে গেছে। আর সেই ঝড়কে প্রশমন করতে রীতিমতো সমস্যায় পড়তে হলো সঞ্চালককে।ভুল করেও তিনি ভুলবেন মঙ্গলবারের রাতকে।

মঙ্গলবার প্রথম মুখোমুখি বিতর্কে অংশ নিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এবং ওবামা আমলের সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেন। দেশের অর্থনীতি থেকে ব্ল্যাক লাইফ ম্যাটার্স, করোনা পরিস্থিতি থেকে ক্যালিফোর্নিয়ার আগুন– সব বিষয়েই কথা বলেছেন তাঁরা।

তবে বিতর্ক হয়েছে উত্তপ্ত। এতটাই যে এক সময় ট্রাম্পকে থামানোর জন্য ‘শাট আপ’ বলেছেন বাইডেন। আবার বাইডেনের মাস্ক পরা নিয়ে নির্লজ্জ রসিকতা করেছেন ট্রাম্প।

বিতর্কে বার বারই ঘুরে ফিরে এসেছে করোনা পরিস্থিতি এবং হেলথ কেয়ার সিস্টেমের প্রসঙ্গ।

বাইডেন একাধিকবার দর্শকদের আশ্বস্ত করে বলেছেন, তিনি ক্ষমতায় এলে কড়া হাতে করোনা পরিস্থিতির সঙ্গে লড়াইয়ে মাঠে নামবেন। তিনি মার্কিনীদের প্রিয় ওবামাকে অনুসরন করবেন।

এক সময় বাইডেন বলেছেন, আগামী চার বছরে কেমন আমেরিকা তৈরি হবে তা স্থির করবেন আমেরিকানরাই।

অন্য দিকে ট্রাম্পও করোনার ভ্যাকসিনের কথা ফের বলেছেন। অতি দ্রুত দেশের মানুষের হাতে ভ্যাকসিন পৌঁছে যাবে আশ্বাস দিয়েছেন তিনি। যদিও আগামী বছরের আগে ভ্যাকসিন মিলবে বলে মনে করছেন না বিশেষজ্ঞরা।

নির্বাচন প্রক্রিয়া এবং ফলাফলের আলোচনায় উত্তেজিত হয়ে পড়েন দুই প্রার্থী। ট্রাম্পকে প্রশ্ন করা হয়ছিল, তিনি ভোটের ফলাফল মেনে নেবেন কি না। সরাসরি উত্তর না দিয়ে ট্রাম্প বলেছেন, সম্পূর্ণ ফলাফল প্রকাশ হতে বহু দিন সময় লেগে যাবে।

ডাকযোগের ব্যালট নিয়ে ফের তিনি সংশয় প্রকাশ করে বলেন, বিরোধীরা কারচুপি করার চেষ্টা শুরু করে দিয়েছে। বাইডেন অবশ্য জানিয়েছেন, ফলাফল যাই হোক না কেন, তিনি তা মেনে নেবেন। মানুষের রায়কে কোনো ভাবেই তিনি অগ্রাহ্য করবেন না।

ডেমোক্র্যাট ক্যালিফোর্নিয়া নিয়েও বিতর্কে সুর চড়িয়েছেন ট্রাম্প। তাঁর বক্তব্য, প্রতি বছরই সেখানে দাবানল হয়। এ থেকেই বোঝা যায়, সেখানকার প্রশাসন দাবানল ঠেকাতে ব্যর্থ। ডেমোক্র্যাটরা সফল ভাবে প্রশাসন চালাতে কতটা ব্যর্থ, তা বোঝাতে গিয়েই এ কথা বলেন ট্রাম্প।

যদিও বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, বিশ্ব উষ্ণায়নের কারণেই ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানল ছড়িয়েছে। প্রশাসন তা রোধ করতে পারে, কিন্তু বন্ধ করা অসম্ভব। এর আগেও এ বিষয়ে মুখ খুলেছিলেন ট্রাম্প। উষ্ণায়নের তত্ত্বকে উড়িয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

লাফায়েত্তে পার্কের দুইপাশে দাঙ্গা পুলিশ দাঁড়িয়ে এর মাঝখান দিয়ে হোয়াইট হাউজ থেকে হেঁটে সেন্ট জন্স চার্চে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডকে শ্বাসরোধ করে হত্যার বিরুদ্ধে প্রতিবাদের যে ঝড় উঠেছে তা থেকে প্রেসিডেন্টকে রক্ষা করতেই এ ব্যবস্থা৷

তবে এ দিনের বিতর্ক সব চেয়ে বেশি উত্তাপ ছড়ায় বর্ণবাদ প্রসঙ্গে। সাম্প্রতিক কালে অ্যামেরিকায় একের পর এক কৃষ্ণাঙ্গ হত্যার বিষয়ে প্রেসিডেন্টকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, এ কাজ তিনি সমর্থন করেন না। এই একটি বাক্য বলেই পুরো বিষয়টিকে বামপন্থী এবং লিবারালদের দিকে ঠেকে দেন তিনি। বলেন, তাদের উস্কানিতেই বিভিন্ন জায়গায় বিক্ষোভ হচ্ছে। সমস্যা হচ্ছে। পুলিশ প্রশাসন নিয়েও কোনও মন্তব্য করেননি ট্রাম্প।

বাইডেন অবশ্য ব্ল্যাক লাইফ ম্যাটার্স আন্দোলনকে সমর্থন করেছেন। বর্ণবাদের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে তিনি বলেছেন, নতুন করে অ্যামেরিকায় যে পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে, দ্রুত তা শেষ করা দরকার। পুলিশ প্রশাসনের বাজেট কমানোর পক্ষে তিনি নন বলে জানিয়েছেন বাইডেন।

তবে পুলিশ বিভাগের সংস্কার যে প্রয়োজন তা মেনে নিয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে তাঁর বক্তব্য, কমিউনিটি পুলিশ তৈরি করতে হবে। বিভিন্ন কমিউনিটির সমস্যার কথা যারা বুঝতে পারবেন।

এ দিনের বিতর্কে স্বাভাবিকভাবেই উঠে এসেছে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি নিয়োগের প্রশ্নটিও। ট্রাম্প তাঁর পদক্ষেপের পক্ষে কথা বলেছেন। বাইডেন এই সময়ে বিচারপতি নিয়োগের বিরুদ্ধে তাঁর মতামত প্রকাশ করেছেন।

এরপর আবার বিতর্কে যোগ দেবেন ট্রাম্প এবং বাইডেন।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা, সেই বিতর্কে সুর আরও চড়বে। প্রথম দিনের বিতর্কই আমেরিকার এ বারের নির্বাচনের সুর বেঁধে দিয়েছে।

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প  একজন যোদ্ধা এবং তিনি তাঁর দেশকে দারুণ ভালোবাসেন বলে মনে করছেন... আরও পড়ুন

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

ছি! কীভাবে এই দৃশ্যটি আমি দেখি! ফোনে ফোনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া সেই নির্মম... আরও পড়ুন

ফোনে ফোনে সামাজিক

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Recommended for you

প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন

প্রেসিডেন্ট হলে মুসলিমদের পাশে থাকবেন বাইডেন

আগামী ৩ নভেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাধারণ নির্বাচনে মসনদে বসতে পারলে মার্কিন মুসলিমদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন ডেমোক্রেটদের প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বাইডেন। দেশটির ইসলামিক সোসাইটি অব নর্থ আমেরিকার (আইএসএনএ) ৫৭তম বার্ষিক... আরও পড়ুন

যুক্তরাষ্ট্রের ঐক্য নষ্ট করছেন।তিনি

আমেরিকা নেতৃত্বের জন্য চিৎকার করে কাঁদছে: কমলা হ্যারিস

আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জো বাইডেনের রানিং মেট কমলা হ্যারিস অভিযোগ করেছেন, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের ঐক্য নষ্ট করছেন।তিনি আসলে একই সঙ্গে দেশটিকে টুকরো টুকরো করে ফেলছেন । স্থানীয় সময়... আরও পড়ুন