ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস

বাবা মায়ের স্মৃতি বলতে শুধুই নিথর দুটি লাশ

রিডার::ঢাকা

বুধবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৮ ০৮:১০:১৪ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  

 

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের স্মৃতিচরণ করতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছিলেন বঙ্গবন্ধুর ভাগ্নে ফজলুল হক মনির ছেলে ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস।

ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য তাপস বলেন, ‘অন্যদের বাবা মায়ের কত স্মৃতি। আমারও তো ইচ্ছে করে অন্যদের মতো বাবা-মায়ের স্মৃতিচারণ করতে। অনেক খুঁজেছি কিন্তু কোনো স্মৃতিই পাইনি। শুধু আবছা আবছা একটি স্মৃতি। আমার বাবা-মার স্মৃতি বলতে শুধু মেঝেতে পড়ে থাকা নিথর দুটি লাশ।’

বঙ্গবন্ধুর বোন শেখ আছিয়া বেগমের বড় ছেলে শেখ মনি ছিলেন আওয়ামী যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা।একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় গেরিলা বাহিনীর অন্যতম — মুজিব বাহিনী, শেখ মনির প্রত্যক্ষ তত্বাবধানে গঠিত ও পরিচালিত হয়েছে।১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ঘাতকদের গুলিতে প্রাণ হারান তাপসের বাবা শেখ ফজলুল হক মনি এবং মা আরজু মনি। এতিম হয়ে পড়েন তাপস ও তার ভাই শেখ ফজলে শামস পরশ।

এসময় তাপসের বয়স ছিল চার বছর এবং পরশের ছয় বছর। ব্যারিস্টার তাপস বলেন, ‘আমি তখন অবুঝ ছিলাম। কিন্তু এখন বুঝ হলেও মনকে বুঝ দিতে পারি না। কোনো সন্তান যখন ঘরে ফিরে যায় তখন কেন তার মাকে পাবে না! কেন তার মাকে আলিঙ্গন করতে পারবে না!

ধানমন্ডির নিজ কার্যালয়ে এমনই আগেবজড়িত কণ্ঠে সেদিনের স্মৃতিচারণ করেন ফজলে নূর তাপাস। তাপস বলেন, ‘অনেক ভেবেছি, অনেক চিন্তা করেছি। এছাড়া আমি আর কিছু মনেই করতে পারি না!’

তিনি বলেন, ‘এই মুহুর্তে মনে পড়ছে, বাবার সাদা গেঞ্জি পরা লাশ।সিঁড়ির চৌকিতে পড়ে আছে, গলায় গুলি লেগেছে। রক্তের ভেজা ।গুলির সেই ছাপ আজ স্মৃতিতে গেঁথে আছে।আরেকটি হল, বাবা-মায়ের লাশ নিয়ে যাওয়ার পর বাড়ির সিঁড়িতে জমাট বাধার রক্তের দাগ।’

‘এর বেশি কিছু মনে নেই।মনে নেই ওনাদের আদর, সোহাগ কিংবা ভালবাসার কোন স্মৃতি।’

এক পর্যায় তিনি বলেন, ‘বাবা-মাকে মেরে ফেলার পর আমরা বছর দুয়েক আত্মীয়ের বাড়িতে পালিয়ে বেড়িয়েছি। এরপর ১৯৭৮ সালের দিকে দাদির সঙ্গে চলে যাই ভারতে।চাচারা সবাই আগেই চলে গেছিলেন।কিছুদিন ভারতে থাকার পর আবার দেশে ফিরলাম।তখন সমস্যা হল থাকার জায়গা নিয়ে কেউ নিরাপত্তার চিন্তা করে বাসা ভাড়া দিতে চাইল না। প্রথম দিকে আত্মীয়ের বাড়িতে থাকতে হয়েছিল।বহুদিন পর আমরা লালমাটিয়ার একটি বাসায় উঠি।পড়ালেখা নিয়েও কম গোল-মাল হয়নি।কখনও স্কুলে ভর্তি হতে দেয়া হতো না। কখনও আবার স্কুল কর্তৃপক্ষ স্কুলে ভর্তি নিতো না, সেই নিরাপত্তার ভয় মাথায় রেখেই।লেখা-পড়াটা অনেক কষ্টেই করতে হয়েছে।’

তাপস বলেন, ‘দুই এতিম ভাইয়ের একমাত্র সহায় ছিলেন দাদি।পাশে ছিলেন চাচা, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, শেখ ফজলুল রহমান মারুফ।সব মিলিয়ে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানার আদর, ভালবাসা-স্নেহের কারণে আজ এ অবস্থানে আসতে পেরেছি।’

তাপস আরও বলেন,এ মাসটির শুরু বুকের কষ্টটা আরও একটু বেশি বেড়ে যায়। বিচার হয়েছে বলে খানিকটা স্বস্তি পাই।

 

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।