বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ভিসিকে প্রত্যাহারের সুপারিশ ইউজিসির

রবিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০৯:১৩:১৬ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
নানা অনিয়ম

নানা অনিয়ম ও দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও নৈতিক স্খলনের দায়ে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) ভিসি অধ্যাপক খোন্দকার নাসিরউদ্দিনকে প্রত্যাহার করার সুপারিশ করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) তদন্ত কমিটি এ সংক্রান্ত রিপোর্টে প্রত্যাহারের পাশাপাশি তার বিরুদ্ধে ওঠা অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণসহ একাধিক সুপারিশ করে।

আজ রবিবার ইউজিসির পাঁচ সদস্যের এই কমিটি প্রতিবেদনটি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহর কাছে জমা দেন । সেটি গতকালই শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে।

পাঁচ সদস্যেরর কমিটির প্রধান অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- ইউজিসির সদস্য দিল অধ্যাপক আফরোজা বেগম, ইউজিসির সদস্য অধ্যাপক সাজ্জাদ হোসেন, ইউজিসির পরিচালক কামাল হোসেন। কমিটির সদস্য সচিব ছিলেন উপপরিচালক মৌলি আজাদ ।

গত ২৫ ও ২৬ সেপ্টেম্বর ইউজিসির তদন্ত দল বশেমুরবিপ্রবি-তে অবস্থান করে। এ সময় তারা উপাচার্যের বিরুদ্ধে উঠা অভিযোগ তদন্তে ১৯ ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলেন। এরমধ্যে রয়েছেন উপাচার্য, প্রক্টর, একাধিক শিক্ষক, আন্দোলনকারি শিক্ষার্থী এবং এলাকাবাসী।

তদন্ত কমিটি সূত্র জানায়, যে ঘটনাকে কেন্দ্র করে আন্দোলন শুরু হয়েছিলো, তাতে সম্পূর্ণ দোষ উপাচার্যের। কারন তিনি একজন শিক্ষার্থীর সঙ্গে যে ভাষায় কথা বলেছেন, তা তিনি বলতে পারেন না।

এছাড়া উপাচার্য নিজে দোষ করে উল্টো ওই শিক্ষার্থীকেই বহিষ্কার করেন। যা আরেকটি অন্যায়। আন্দোলন থামাতে তিনি বিশ^বিদ্যালয় বন্ধ ঘোষনা করেছেন।

এছাড়া আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর হামলা বহিরাগতদের দ্বারা হয়েছে বলে উপাচার্য জানিয়েছেন। কিন্তু বিশ^বিদ্যালয়ের অভিভাবক হিসেবে এখানেও উপাচার্যেও দায়ভার আছে।

বহিরাগতদের দ্বারা হামলা হলে উপাচার্যেও অবশ্যই মামলা করা উচিত ছিলো। কিন্তু তিনি তা করেননি। এতে বোঝা যায়, হামলায়ও উপাচার্যের ইন্ধন বা সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

‘একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ কী?’ এই প্রশ্নটি ফেসবুকে লিখেছিলেন বশেমুরবিপ্রবির আইন বিভাগের ছাত্রী এবং একটি জাতীয় দৈনিকের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি ফাতেমা-তুজ-জিনিয়া।

তাতেই ক্ষুদ্ধ হন ভিসি। তিনি ওই ছাত্রীকে শোনান কুরুচিপূর্ণ কথা। ওই ঘটনার জের ধরেই জিনিয়াকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। যদিও পরে সেই বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছে।

কিন্তু আন্দোলন থেমে থাকেনি। এর পর একে একে আন্দোলন না থাকিয়ে বরং উস্কানি দিতে থাকেন উপাচার্য।

এরই ধারাবাহিকতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা ভিসির পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন। পরিস্থিতি বেশি খারাপ হলে গত ২৩ সেপ্টেম্বর শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী ইউজিসিকে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের সামগ্রিক তথ্যাদি তদন্ত করে জানাতে অনুরোধ করেন।

পরদিন ২৪ সেপ্টেম্বর ইউজিসির সদস্য মুহাম্মদ আলমগীরকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়। ২৫ সেপ্টেম্বর কমিটি ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে সরেজমিনে যায়।

সেখানে দুই দিন সরেজমিনে কাজ করে তদন্ত কমিটি। এরপর রবিবার প্রতিবেদনটি জমা দেয় কমিটি।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১১ সালে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হওয়া নতুন এই বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়োগের অধিকাংশই হয়েছে বর্তমান উপাচার্য খোন্দকার নাসিরউদ্দিনের মেয়াদে। ২০১৫ সাল থেকে তিনি উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করছেন।

ভিসি নাসিরউদ্দিনের বিরুদ্ধে নানা আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে। শিক্ষক ও কর্মচারী নিয়োগে অনিয়ম, শিক্ষাগত যোগ্যতা শিথিল করে এমএলএসএস পদে নিয়োগ, বিজ্ঞপ্তিতে শিক্ষাগত যোগ্যতা হিসেবে এসএসসি বা সমমানের পাস বলা হলেও অষ্টম শ্রেণি পাস প্রার্থীদেরও নিয়োগ, বিভিন্ন কর্মকর্তা-কর্মচারী পদে শিক্ষাজীবনে তৃতীয় বিভাগ বা ২.৫০ জিপিএপ্রাপ্ত প্রার্থীদের নিয়োগ, বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের সময় ব্যয় না হওয়া প্রায় এক কোটি ৬০ লাখ টাকা ভুয়া ভাউচারের মাধ্যমে আত্মসাৎ, নিজের আতœীয়কে নিয়ম ভেঙে পদোন্নতি, বিশ^বিদ্যালয়ে বিউটি পার্লার খোলা, নারী কর্মচারিকে যৌন হয়রাণি, কেনাকাটায় অনিয়ম, ভর্তি পরীক্ষায় পাস না করা শিক্ষার্থীদেরও ভিসি কোটায় ভর্তিসহ নানা অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে।

অনৈতিক সুবিধা নিয়ে ‘ভিসি কোটা’র নামে নিয়মবহির্ভূতভাবে ফার্মেসি বিভাগ, আইন বিভাগ ও বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ভর্তি করানোর অভিযোগ আছে ভিসির বিরুদ্ধে।

২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষে ফার্মেসি বিভাগে মেধাক্রম ২০৮৪ নিয়েও ভর্তি হয়েছেন এক শিক্ষার্থী। ১৩৩৩ মেধাক্রম নিয়ে আইন বিভাগে ভর্তি হয়েছেন আরেকজন।

অথচ এসব বিভাগে এক থেকে ১৫০ জন ছাত্রের বেশি ভর্তি হওয়ার কথা নয়। এমনকি পরীক্ষায় ফেল করা শিক্ষার্থীদের ভর্তি করারও অভিযোগ আছে।

 

 

 

 

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

ছি! কীভাবে এই দৃশ্যটি আমি দেখি! ফোনে ফোনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া সেই নির্মম... আরও পড়ুন

ফোনে ফোনে সামাজিক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভাইস-প্রেসিডেন্ট বিতর্কের সময় কোথা থেকে এক বেরসিক মাছি উড়ে এসে জুড়ে বসলো,... আরও পড়ুন

হাওরের রুপ উপভোগ করতে কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক দেখতে যেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ... আরও পড়ুন

ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।