ফাহিমের সম্ভাব্য খুনি আটক!

রিডার::যুক্তরাষ্ট্র

শুক্রবার, ১৭ জুলাই, ২০২০ ০১:৩৬:৩৩ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশ।

বাংলাদেশের রাইড শেয়ারিং অ্যাপ পাঠাও সহ-প্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহ হত্যায় জড়িত সন্দেহভাজন খুনিকে পাকড়াও করেছে যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশ।নিউইয়র্ক টাইমস আজ শুক্রবার তাদের এক প্রতিবেদনে প্রকাশ করেছে।

গত মঙ্গলবার নিউ ইর্য়কের ম্যানহাটনের তার বিলাসবহুল অ্যাপার্টমেন্টের খুন হন তরুণ টেক জায়ান্ট ফাহিম সালেহ।

তবে এখনও পর্যন্ত ওই ব্যক্তিকে আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রেপ্তার দেখানো হয়নি।

এনওয়াইপিডি সূত্র বলছে, আটক ব্যক্তিকে কড়া নিরাপত্তার মধ্যেই মনস্তাত্তিক বিশ্লেষণের জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

বেশ বড় ধরণের লেনদেনকে কেন্দ্র করেই এই হত্যাকান্ড ঘটনা ঘটেছে বলে আভাস পাওয়া গেছে।

নিউ ইয়র্ক পোস্ট বলছে,  ফাহিমের সম্ভাব্য খুনিকে (পারসন অব ইন্টারেস্ট) শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ। এ ব্যাপারে পুলিশের একাধিক সূত্র তাদেরকে নিশ্চিত করেছে। তবে তদন্তের স্বার্থে বিস্তারিত কোনও তথ্য দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে তারা।

সিএনএন বলছে, সিসিটিভি ফুটেজের সূত্র ধরেই একজনকে শনাক্ত করার কথা জানা গিয়েছিল বুধবার। নিউইয়র্ক পুলিশ বৃহস্পতিবার লোকটিকে আটক করার পর জিজ্ঞাসাবাদে তিনি আবোলতাবোল বকতে থাকেন বলে জানা যায়।সাধারণত এমন আটক করার ঘটনায় পেশাদার খুনিরা পাগলামোর অভিনয় করে থাকেন। বিচারের সময় আইনগত সুবিধা পাওয়ার জন্যই তাঁরা এ ধরনের আচরণ করে থাকেন।

পুলিশ বিভাগের অপরাধ নিয়ে কাজ করা এক কর্মকর্তার জানান, স্বাভাবিক প্রটোকল অনুযায়ী আটক ব্যক্তিকে মনস্তত্ত্ববিদের কাছে নিয়ে যেতে হয়। এরপর জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে তাঁর যোগসূত্রের বিষয়ে নিশ্চিত হয়ে গ্রেপ্তারের কথা আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়।এ প্রক্রিয়ায় কিছুটা সময় লাগতে পারে।

ফাহিমের হত্যাকাণ্ড নিউইয়র্ক পুলিশের জন্য হাইপ্রোফাইল মামলা হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।

পুলিশের সূত্র ধরে নিউইয়র্কের ‘আই উইটনেস নিউজ চ্যানেল সেভেন’ জানিয়েছে, আটক ব্যক্তি ফাহিমের সঙ্গে কাজ করতেন। তাঁদের মধ্যে ব্যবসায়িক কোনো লেনদেন ভালো যায়নি বলেই এ হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিষয়টি এখনো তদন্তাধীন বলে এর বেশি কিছু জানা যায়নি।খুনি খুবই পেশাদার। এ জন্য পাগলের ভান করছেন। আর সেই ফোকর থেকে বের হতেই পুলিশও তাঁকে গ্রেপ্তার না দেখিয়ে মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করেছে।

আটক ওই ব্যক্তির কাছ থেকে পুরো ঘটনার তথ্য বের করে আনার চেষ্টা করছে নিউইয়র্ক পুলিশ।ফাহিম সালেহকে খুন করা হয়েছে পরিকল্পিতভাবে। পেশাদার খুনি শুরু থেকে বলা হলেও পেশাদার খুনি কাজটি পেশাদারের মতো শেষ করতে পারেননি।

ফাহিমের সঙ্গে লিফটে ওঠা ব্যক্তিকে তাঁর অ্যাপার্টমেন্টেই ঢুকতে দেখা গেছে। অ্যাপার্টমেন্টের দরজা দিয়ে লিফটে করে নেমে আসার কোনো ভিডিও চিত্র পাওয়া যায়নি। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ফাহিমের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। এ জন্য ‘টেজার’ নামের একটি বৈদ্যুতিক যন্ত্র ব্যবহার করে শুরুতেই ফাহিমকে কাবু করে ফেলেন ঘাতক।

ফাহিমকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অটোসপি রিপোর্টে দেখা গেছে। পরে ইলেকট্রিক করাত দিয়ে ফাহিমের দেহ টুকরা টুকরা করা হয়েছে। ব্লিচ দিয়ে রক্ত পরিষ্কার করা হয়েছে। শরীরের বিভিন্ন অংশ নির্মাণকাজে ব্যবহার করা ভারী প্লাস্টিকের ব্যাগে ঢোকানোর সময় লবি থেকে বা বাইরে থেকে কেউ ফাহিমের খোঁজ করতে আসেন।

হত্যাকারী ফাহিমের মরদেহ টুকরা টুকরা করে ব্যাগে ভর্তি করে। এই ফাঁকে ধুয়েমুছে রক্ত পরিষ্কার করেন। ঘটনাস্থলে তেমন রক্ত পাওয়া যায়নি। কেউ আসছে বা দরজায় বেল দিচ্ছে, এমন ঘটনার পর হত্যাকারী সাত তলা অ্যাপার্টমেন্টের পেছনের সিঁড়ি দিয়ে নেমে যান। এ জন্য তাঁকে চাবি ব্যবহার করতে হয়েছে। ফলে ঘাতকের এ ধরনের আপৎকালীন এক্সিট পরিকল্পনা আগে থেকেই নেওয়া ছিল বলে মনে করা হচ্ছে।

আশার কথা হল, ইলেকট্রিক করাতে ও অন্যত্র আঙুলের ছাপ পেয়েছে পুলিশ। পেছনের সিঁড়ি দিয়ে নামলেও নিউইয়র্ক নগরীর সর্বত্র এখন সিসি ক্যামেরার আওতায়।

এসব ক্যামেরায় ধারণ করা ভিডিও চিত্র দেখে হত্যাকারীকে শনাক্ত করা গেছে। অনেকটা করোনার কন্টাক্ট ট্রেসিংয়ের মতো হত্যাকারীর অবস্থান চিহ্নিত করে নিউইয়র্ক পুলিশ। ফাহিম সালেহর অ্যাপার্টমেন্ট থেকে কিছু খোয়াও যায়নি। ঘরের মালামাল পরিপাটি ছিল। কোনো তছনছের চিহ্নও পায়নি পুলিশ।

নিহত ফাহিম সালেহর পরিবারের পক্ষ থেকে নিউইয়র্ক পুলিশের কাছে এ অপরাধের তদন্তের গভীরে যাওয়া এবং ফাহিমের হত্যাকারীর বিচার নিশ্চিত করার আহ্বান জানানো হয়েছে।

 

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।