জয়নালসহ সেই তিন আসামী রিমান্ডে

রিডার:: ফাহাদ মোল্লা:: ঢাকা

বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:১৪:২২ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
হওয়া মামলায় গ্রেফতার

চট্টগ্রাম নির্বাচন অফিস থেকে ল্যাপটপ গায়েব ও রোহিঙ্গাদেরকে অবৈধভাবে বাংলাদেশি জাতীয় পরিচয়পত্র পাইয়ে দেয়ার ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় গ্রেফতার তিন আসামীকে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিএমপি কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের পরিদর্শক রাজেশ বড়–য়া বুধবার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, গ্রেফতার তিনজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছিল।

বিচারক মামলার প্রধান আসামী জয়নালকে তিনদিনের এবং অপর দুই আসামী বিজয় দাস ও তার বোন সীমা দাস ওরফে সুমাইয়াকে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

রাজেশ বড়–য়া বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে আসামীদের কাছে জানতে চাওয়া হবে কিভাবে তারা রোহিঙ্গাদেরকে এনআইডি দেয়ার মত দুঃসাহসিক ও রাষ্ট্রবিরোধী তৎপরতায় লিপ্ত হয়েছিল।

তাদের পেছনে কোন রাঘব বোয়াল আছে কিনা, তারা যতই শক্তিশালী হোক খুঁজে বের করে আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হবে।

প্রধান আসামী জয়নাল কোথা থেকে ল্যাপটপ সংগ্রহ করেছে, সাগর ও সত্য সুন্দরের সাথে জয়নালের সম্পর্ক কিভাবে হল এবং এই দুষ্টচক্রে আরো কেউ জড়িত আছে কিনা তা তদন্ত করে বের করা হবে।

এদিকে, পুলিশের হাতে গ্রেফতার নির্বাচন কমিশনের কর্মী জয়নাল আবেদীন ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকার বিনিময়ে রোহিঙ্গাদেরকে জাতীয় পরিচয়পত্র করে দেয়ার কন্ট্রাক্ট নিতেন বলে নির্বাচন কার্যালয় ও পুলিশ সূত্র জানিয়েছে।

জানা গেছে, এনআইডি তৈরির কাজটা জয়নাল বাসায় বসেই করতেন। জয়নালের সাথে সাগর ও সত্য সুন্দর নামে দুইজনের সাথে পরিচয় ছিল যারা একসময় ঢাকায় এনআইডি প্রকল্পে কাজ করতেন।

পরিচয়ের সূত্র ধরে সাগরের কাছ থেকে ১০ হাজার টাকায় একটি ল্যাপটপ কেনেন জয়নাল। প্রতি শুক্র, শনিবার ও বন্ধের দিনে জয়নাল তার অফিস থেকে (জেলা নির্বাচন কার্যালয়) ডিএসএলআর ক্যামেরা, ফিঙ্গার প্রিন্ট স্ক্যানার, সিগনেচার প্যাড গোপনে নিজের বাসায় নিয়ে যেতেন।

বাসায় বসে তিনি ল্যাপটপের সাথে সেসব সরঞ্জাম জুড়ে রোহিঙ্গাদের যাবতীয় তথ্য সাগরের কাছে পাঠাতেন।

সাগর নির্বাচন কমিশনের সার্ভারে অবৈধভাবে ঢুকে তথ্য আপলোডসহ যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করে জাতীয় পরিচয়পত্রের প্রিন্ট কপি কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে জয়নালের কাছে পাঠিয়ে দিতেন।

নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, জয়নালের এক মামা ছিলেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা।

তার মাধ্যমে জয়নাল ও তার ১৬ জন আত্মীয় নির্বাচন কমিশনে বিভিন্ন পদে চাকরি পেয়েছেন। ২০০৪ সালে তিনি অফিস সহায়ক হিসেবে নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ে চাকরিতে যোগ দেন।

২০০৮ সালে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রকল্প শুরু হলে তিনি বিভিন্ন কাজ রপ্ত করে নেন। ওই সময় তিনি জাতীয় পরিচয়পত্রের সার্ভারে ঢুকে তথ্য পরিবর্তন কাজ শিখে নেন।

প্রথমদিকে ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকার বিনিময়ে জাতীয় পরিচয়পত্রে নাম, জন্ম তারিখসহ ছোটখাটো সংশোধনগুলো করে দিতেন।

পরে তিনি রোহিঙ্গাদের ভোটার করে জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরি করে দেওয়ার কাজ শুরু করেন। অফিসে উগ্র আচরণের কারণে জয়নাল অন্তত ১০ বার চট্টগ্রাম নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে শাস্তিমূলক বদলি হয়েছেন।

তবে বিভিন্নভাবে প্রভাব বিস্তার করে তিনি আবার চট্টগ্রামে চলে আসতেন।

ইসি’র সার্ভারের সুরক্ষা নিয়ে প্রশ্ন!

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, নির্বাচন কমিশনের সার্ভারের সুরক্ষা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। মিয়ানমার থেকে রোহিঙ্গা আসা শুরু হওয়ার পর এ বিষয়ে আরো সতর্কতা প্রয়োজন ছিল।

সার্ভারের পর্যাপ্ত সুরক্ষা না থাকার সুযোগ নিয়েই একটি দুষ্ট চক্র রোহিঙ্গাদের এনআইডি ইস্যু ও সংশোধনের নামে রমরমা বাণিজ্য শুরু করার দুঃসাহস পায়।

জানা গেছে, নির্বাচন কমিশনের গঠিত বিশেষ তদন্ত টিমের সদস্য এবং চট্টগ্রামের নির্বাচন অফিসের কর্মকর্তারা মূলত দুটি বিষয়কে গুরুত্ব দিচ্ছেন।

এগুলো হচ্ছে- লাইসেন্স করা ল্যাপটপগুলো সুরক্ষিত রাখা এবং যে কোনো পর্যায়ের ইসি কর্মীর সার্ভারে প্রবেশকে নিয়ন্ত্রণে আনা।

এই দুটি কাজ শুরু থেকেই কঠোরভাবে মনিটরিং করা গেলে রোহিঙ্গাদের এনআইডি পাওয়া ঠেকানো যেত বলে তারা মনে করেন।

ইসির প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ মোহাম্মদ শাহাবুদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ইসির নিবন্ধিত ল্যাপটপগুলো লাইসেন্স করা সফটওয়্যারভূক্ত। এটা অফলাইন সিস্টেমে কাজ করে না।

মূল সার্ভারের সঙ্গে কোনো সংযোগ নেই। তবে উপজেলা পর্যায়ে ল্যাপটপগুলোতে কাজ করা হয় ইন্টারনেট মডেম দিয়ে। সেই মডেম সংযুক্ত করলে সার্ভার সচল হয়।

তখন সরাসরি ইনফরমেশন ইনপুট দেওয়া যায়। রোহিঙ্গাদের এনআইডি পাওয়ার জন্য তথ্যও এই প্রক্রিয়ায় সার্ভারে ইনপুট দেওয়া হয়ে থাকতে পারে বলে তিনি মনে করেন।

তিনি আরো জানান, রোহিঙ্গাদের এনআইডি প্রাপ্তির ঘটনা প্রকাশিত হওয়ার পর এনআইডির কাজে নিবন্ধিত ইসির সব ল্যাপটপের পাসওয়ার্ড ও আইপি পরিবর্তন করা হয়েছে।

ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিয়ে ল্যাপটপগুলো অথেনটিকেট করা হয়েছে। জেলা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ছাড়া কেউ এখন সেসব ল্যাপটপ খুলে সার্ভারে প্রবেশ করতে পারবে না।

এছাড়া হারিয়ে যাওয়া ল্যাপটপ কারো কাছে থাকলেও সেটা দিয়ে আর সার্ভারে ইনফরমেশন ইনপুট দেওয়া সম্ভব হবে না।

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

ছি! কীভাবে এই দৃশ্যটি আমি দেখি! ফোনে ফোনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া সেই নির্মম... আরও পড়ুন

ফোনে ফোনে সামাজিক

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভাইস-প্রেসিডেন্ট বিতর্কের সময় কোথা থেকে এক বেরসিক মাছি উড়ে এসে জুড়ে বসলো,... আরও পড়ুন

হাওরের রুপ উপভোগ করতে কিশোরগঞ্জ জেলার ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক দেখতে যেতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ... আরও পড়ুন

ইটনা-মিঠামইন-অষ্টগ্রাম সড়ক

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আইন না মেনে এনআইডি ব্যবহার বাধ্যতামুলক

আইনের তোয়াক্কা না করেই সকল নাগরিক সেবা প্রাপ্তিরক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) ব্যবহার এক প্রকার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান লিখিতভাবে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদর্শন বাধ্য করেছে। ফলে যাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নেই তারা প্রায়শ হয়রানীর শিকার হচ্ছেন। নির্বাচন কমিশন (ইসি)... আরও পড়ুন

এখন কেবল

প্রবাসীদের ভোটার করার সব প্রস্তুতি সম্পন্ন ইসির

প্রবাসীদের সংশ্লিষ্ট দেশেই ভোটার করে নিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) বা স্মার্টকার্ড দেয়ার সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে। এখন কেবল সিঙ্গাপুর সরকারের অনুমতি পেলেই কার্যক্রম শুরু করা হবে। দেশটির সরকার কোন প্রক্রিয়ায়, কিভাবে এই কার্যক্রম শুরু করা হবে, তা জানতে চেয়েছে।... আরও পড়ুন

নাগরিকদের সুবিধার

অনির্দিষ্টকালের জন্য জেলায় পর্যায়ে এনআইডি প্রিন্ট বন্ধ

নাগরিকদের সুবিধার কথা চিন্তা করে জেলা পর্যায়ে হারানো জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) ছাপানোর কার্যক্রম শুরুর তিন মাসের মাথায় হোচট খেয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ‘টেকনিক্যাল’ সমস্যার কারণ দেখিয়ে আজ সোমবার এ কার্যযক্রম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করা হয়েছে। জেলা কর্মকর্তাদের এমন নির্দেশনা পাঠিয়েছেন... আরও পড়ুন

জাতীয় পরিচয়পত্রের

শূণ্য থেকে ১৮ বছর বয়সীরা আগামীতে পাবেন এনআইডি

  জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) আওতায় আসছে শুন্য থেকে ১৮ বছরের কম বয়সী নাগরিকরা। নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভোটার হওয়ার অযোগ্য এসব নাগরিককে আগামীতে নিবন্ধনের মাধ্যমে জাতীয় পরিচয়পত্র সরবরাহ করবে। এ প্রক্রিয়া বাস্তবায়ন হলে দেশের সব নাগরিক নিবন্ধনের আওতায় চলে আসবে। কেননা... আরও পড়ুন