জানতাম, নিরাপত্তা পরিষদ প্রস্তাব মানবে না:ট্রাম্প

রিডার::যুক্তরাষ্ট্র

রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০২০ ০৪:৩১:৫০ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
নিরাপত্তা পরিষদে তোলা

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তিনি আগে থেকেই জানতেন, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে তোলা ইরান-বিরোধী মার্কিন প্রস্তাব নাকোচ হয়ে যাবে।

স্থানীয় সময় শনিবার নিউ জার্সির বেডমিনিস্টার রিসোর্টে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প বলেন, আমরা শিগগিরই সাবেক অবস্থায় ফিরে যাব। আগামী সপ্তাহে আপনারা তা দেখতে পাবেন।

ট্রাম্পের যুক্তি হল, যুক্তরাষ্ট্র ২০১৫ সালের ইরানি পরমাণু চুক্তির অংশীদার হিসেবেই আছে। যে কারণে যুক্তরাষ্ট্র যদি দেখে- ইরান কোনও শর্ত লঙ্ঘন করেছে, তাহলে নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করতে জোর করতে পারবে।

যদিও ওই চুক্তি থেকে সরে আসার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। নিষেধাজ্ঞা বহালে ওয়াশিংটন জবরদস্তি করতে পারবে কিনা, তা নিয়ে সন্দিহান ইউরোপীয় ইউনিয়ন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ট্রাম্পের আগের অবস্থায় ফিরে যাওয়ার হুমকিতে কাউন্সিল এ যাবতকালের সবচেয়ে খারাপ কূটনৈতিক সংকটের ভেতরে পড়ে যাবে।

এদিকে গতকাল শনিবার ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেন, শুক্রবার কাউন্সিলের ভোটে যুক্তরাষ্ট্রের লজ্জাজনক পরাজয় ঘটেছে।

কাউন্সিলের ১১ সদস্য ভোট দেওয়া থেকে বিরত ছিল। যার মধ্যে যুক্তরাজ্য, জার্মানি ও ব্রিটেন আছে। আর চীন ও রাশিয়া মার্কিন প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র কেবল নিজের ও ডোমিনিক্যান রিপাবলিকের ভোট পেয়েছে।

তবে ট্রাম্প একথা পরিষ্কার করেন নি যে, চীন ও রাশিয়ার ভেটোর কারণে মার্কিন প্রস্তাব প্রত্যাখ্যাত হতো নাকি নিরাপত্তা পরিষদের অন্য সদস্যরা এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করত।

গত শুক্রবার নিরাপত্তা পরিষদে ইরানের বিরুদ্ধে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ানোর লক্ষ্যে তোলা মার্কিন প্রস্তাবের ওপর ভোটাভুটি হয়। কিন্তু আমেরিকার সমর্থনে মাত্র একটি দেশ ভোট দেয়।

আমেরিকার পুরাতন মিত্র যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানিসহ ১১টি দেশ ভোটদানে বিরত ছিল। মার্কিন মিত্রদের এই অবস্থান থেকে পরিষ্কার হয়েছে যে, ইরানের পরমাণু কর্মসূচি ইস্যুতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আমেরিকা মিত্রহীন হয়ে পড়েছে।

মার্কিন প্রস্তাব প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পরও গতকালের সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্প ইরানের পরমাণু ইস্যুতে ব্যবস্থা নেয়ার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, আগামী সপ্তাহে আপনারা দেখবেন কী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এর আগেই আমেরিকা ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গেছে।

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।