গুপ্তচরদের অম্ল-মধুর ফাঁদ

বৃহস্পতিবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৮ ০২:০০:২২ অপরাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  

রিডার::নিমাই দাস

সাম্প্রতিক সময়ে ভারতীয় বিমান বাহিনীর এক অফিসারের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে এমন এক নারীর সাথে ঘনিষ্ঠতা গড়ে তোলার যিনি নিজেকে ফেসবুকে ডামিনি ম্যাকনট নামে পরিচয় দিয়েছিলেন। নিজেকে যুক্তরাজ্য ভিত্তিক এক সংবাদ সংস্থার অপরাধ বিভাগের সাংবাদিক বলে দাবী করেন তিনি।

প্ররোচনায় পড়ে ভারতীয় বিমান বাহিনীর রণকৌশলের গোপন নথিপত্র বান্ধবীর সাথে শেয়ার করে বসেন ভদ্রলোক। এমন পেশায় আবেগের যে কোনো জায়গা নেই, তা হয়তো বেমালুম ভুলেই গিয়েছিলেন তিনি।

আর তাতেই হয়ে গেলো সব তছনছ।

সবকিছু বেশ ভালোই চলছিল দুজনের মধ্যে।  কাজ হাসিলের পর পাখি যখন নিজ ঢেড়ায় উড়াল দিল নিজ আকাশে, আর পেছনে ফেলে রেখে গেল আবেগী অফিসারের চালান করা তথ্যের প্রমাণ। তথ্য পাচারের সন্দেহে তখন সেই ভদ্রলোক চৌদ্দ শিকের ভেতর।

খুঁজতে খুঁজতে পাওয়া গেল মেয়েটি আসলে যুক্তরাজ্যের হয়ে নয়, কাজ করছিল পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা ‘ইন্টার সার্ভিসেস ইন্টেলিজেন্স’ বা আইএসআইয়ের হয়ে।

ভারত-পাকিস্তানের গুপ্তচরবৃত্তি নিয়ে কম সিনেমা হয়নি আজ অবদি।কিন্তু তারপরেও প্রেমের মরা সেই দুই দেশের গোয়েন্দাদের শিকড়ে যেয়ে আটকা পড়ে।

তার দশ বছর আগে ‘রোমিও স্পাইস’ নামে পুরুষদের নিয়ে একটি নতুন ধারার প্রচলন ঘটে, যার মূলে ছিলেন বিখ্যাত ব্রিটিশ সমকামী সাংবাদিক জেরেমি উলফেন্ডেন। সমকামিতাকে পুঁজি করে সিক্রেট ইন্টেলিজেন্স সার্ভিসের হয়ে ডাবল এজেন্টের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়ে ইতিহাস রচনা করেন তিনি।

ইতিহাসে নির্মম বাস্তবতা আর কল্পকাহিনীর রঙের মিশেলে একটি কথা এখন শতভাগ প্রতিষ্ঠিত। গোয়েন্দা, নিরাপত্তা কর্মী, আর্মি অফিসার থেকে শুরু করে কঠোর চরিত্রের রাজনীতিবিদ- সবার মনের মধ্যেই লুকিয়ে রয়েছে সুপ্ত প্রেম।মানুষ তো। প্রেম তো আসতেই পারে। অনুভুতি উপর কার বা জোড় চলে। তা সে দেশের হোক কিংবা নিয়মের।

এই গুপ্তচররা শুধু মধুর ফাঁদ পেতে তাদের সেই সুপ্ত প্রেমকে জাগিয়ে তুলে বের করে আনতো প্রয়োজনীয় তথ্য। বছরের পর বছর ধরে মধুর ফাঁদ গেঁথে কাজ করছে, করবে আরও অজস্র বছর।

ভারতীয় সেই বিমান বাহিনী অফিসার ধরা পড়ার পর থেকে অনলাইন জগতে ভুয়া অ্যাকাউন্টের ব্যাপারে বিশেষ সতর্কতা জারি করেছে ভারত সরকার।

তরুণ অফিসাররা যেন এই প্রতারণার শিকার না হয়, সেজন্য ইন্টারনেট দুনিয়ায় কড়া নজরদারি জারি রাখা হয়েছে। তবে ইতিহাসের দিকে তাকিয়ে এ কথা অবিশ্বাস করার কোনো উপায় কিন্তু সত্যিই নেই যে, গোটা পৃথিবী মজে আছে সেই মনোমুগ্ধকর ফাঁদে।

ক্রিস্টিন কেলেঙ্কারি
ষাটের দশকে ব্রিটেনকে কাঁপিয়ে দেওয়া এক কেলেঙ্কারির অনবদ্য উপাদানগুলো ছিল- হাই প্রোফাইল এক রাজনীতিবিদ, তার সুন্দরী স্ত্রী, মায়াবিনী কুহকিনী এক নারী হিসেবে যার কুখ্যাতি উভয়ই ছিল।

১৯৬৩ সালের শুরুর দিকে হ্যারল্ড ম্যাকমিলান সরকারের আমলে ব্রিটিশ সংসদ সদস্য এবং যুদ্ধকালীন রাজ্য সচিব জন প্রফুমোর সাথে ১৯ বছর বয়সী ক্রিস্টিন কিলারের প্রণয়ের সম্পর্ক চলছে, এ খবর চতুর্দিকে চাউর হয়ে যায়।

ঘাপলাটা বাঁধে ঠিক সে সময় যখন জানা যায় ক্রিস্টিন ইয়েভগনি ইভানভের সাথেও ঘনিষ্ঠ ছিল, যিনি কি না সোভিয়েত নৌবাহিনীর বিশেষ দূত হিসেবে কাজ করছিলেন। ব্রিটিশ এই আইটি গার্লকে মিডিয়া ইভানভের উপপত্নী বলে প্রচার করতেও কার্পণ্যবোধ করেনি।

প্রণয় আর রক্ষিতার সম্পর্কের জালে ফেঁসে নিরাপত্তার ঝুঁকিতে পড়ে যায় ক্রিস্টিন।

ধারণা করা হয়, ক্রিস্টিনের হাত ধরে প্রফুমোর কাছ থেকে অসংখ্য গুরুত্বপূর্ণ তথ্য রাশিয়ার ঝুলিতে চলে আসে। ফলাফল, রাজনৈতিক জীবন নিয়ে রীতিমতো যুঝতে শুরু করে প্রফুমো।

শেষ রক্ষা করতে না পেরে রাজনীতির পথ ছেড়ে দিয়ে গ্রামে গিয়ে বিভিন্ন দাতব্য প্রতিষ্ঠানের সাথে নিজেকে সংযুক্ত করেন প্রফুমা।

এদিক-ওদিক করে গুপ্তচর হিসেবে ক্যারিয়ারে আরও কিছু প্রাপ্তি যোগ করতে ব্যর্থ হয়ে ফটোগ্রাফের মডেল হওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ক্রিস্টিন।

এরপর চলচ্চিত্র জগতে পা রাখার পাঁয়তারা করতে গিয়ে আবারও ব্যর্থতার মুখোমুখি হয়ে ধীরে ধীরে কালের গর্ভে হারিয়ে যায় এক সময়কার দুর্ধর্ষ এসপিওনাজ ক্রিস্টিন কিলার।৭৫ বছর বয়সে তিনি মারা যান।

 

মাতা হারি

 

এসপিওনাজের জগতে খুব জনপ্রিয়, সেটা কুখ্যাত হোক কিংবা বিখ্যাত, একটি নাম মাতা হারি। ডাচ এই বার বণিতার কথা কে না জানে? বিংশ শতাব্দীতে স্বল্পবসনা নাচের ধর্মীয় আচারের পর্যায়ে নিয়ে যাওয়া এই নারী প্রথম বিশ্বযুদ্ধে স্পেন থেকে ইংল্যান্ডে ঘুরতে পারতেন অনায়াসে।

জার্মানি হয়ে গপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করে ফ্রান্সের পুলিশ। স্পেনে বসবাসরত এক জার্মান রাষ্ট্রদূতের কাছ থেকে অর্থ গ্রহণের প্রমাণ স্বরূপ একটি টেলিগ্রাম জব্দ করে তারা।

ওই রাষ্ট্রদূতের কথা অনুযায়ী কাজ করছিল মাতা হারি, এক টেলিগ্রাম থেকেই উপসংহারে চলে আসে ফ্রেঞ্চ কর্তপক্ষ। প্যারিসে বসে রাজনীতিবিদ আর কূটনৈতিক কাজ করছিল মাতা হারি, এক টেলিগ্রাম থেকেই উপসংহারে চলে আসে ফ্রেঞ্চ কর্তৃপক্ষ।

প্যারিসে বসে রাজনীতিবিদ আর কূটনৈতিক ব্যক্তিদের মনোরঞ্জন করে মাতা হারি সব তথ্য হাতিয়ে ঐ দূতকে পাচার করছিল বলে অবলীলায় প্রমাণ করে তারা।

প্রকৃতপক্ষে ফ্রান্সেরই এক গোয়েন্দা অফিসার ক্যাপ্টেন গিওর্গি জোর পূর্বক মাতা হারিকে বাধ্য করে গোয়েন্দাগিরি করতে। কোনো রকম সাক্ষপ্রমাণের বালাই ছাড়াই ১৯১৭ সালে মাতা হারিকে দাঁড় করানো হয় ফায়ারিং স্কোয়াডে। চোখে কালো কাপড় বাঁধতেও অস্বীকৃতি জানান তিনি।

তার জন্য প্রথম বিশ্বযুদ্ধে ৫০ হাজার সৈন্য নিহত হয়েছে, এমন একটি তথ্য প্রচলিত থাকলেও তা গুজব না আদতে সত্যি তা জানার উপায় নেই।

তবে জার্মানি, ফ্রান্সসহ তৎকালীন বিশ্বে অনেক বাঘঅ বাঘা নেতাদের কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহের জন্য তাঁর মোহনীয় রুপ ছিল মধুর ফাঁদ। এ ব্যাপারে কোনো দ্বিমত নেই। এজন্য মাতা হারিকে অনেকে ‘হানি ট্র্যাপের জননী’ বলে আখ্যায়িত করেন।

আনা চ্যাপম্যান
হয় রাশিয়ার এসপিওনাজরা এতটাই দুর্ধর্ষ যে তাদের বাদ দিয়ে অন্য কারো কথা লেখা যায় না, নাহয় তারা এত বেশি ধরা পড়ে যে তাদের বাদে অন্য কারো কথা জানা যায় না। ২০১০ সালে নিউ ইয়র্কে বসবাসরত আনা চ্যাপম্যান নামক এক রাশিয়ান নারী গুপ্তচরবৃত্তির দায়ে গ্রেপ্তার হন।

 

 

মস্কো শহরে জন্ম নেওয়া এই নারী নাম-পরিচয় পরিবর্তন করে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব অর্জন করে নাইটক্লাব আর নামীদামী ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানগুলোতে হানি ট্র্যাপ ফেঁদে বেড়াতেন। ধারণা করা হয়, অ্যানা ছিলেন রাশিয়ান এক স্পাই রিংয়ের সদস্য যাদের প্রধান কাজ ছিল বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ‘নীতি নির্ধারণী নীতিমালা’ জেনে ব্ল্যাকমেইল করা। এই ফাঁদের হাত থেকে বাদ পড়েনি সরকারি নানা অধিদপ্তরও।

প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, আনা তার শারীরিক সৌন্দর্য ব্যবহার করে তথ্য আদায়ের চেষ্টা করতেন। ওবামা সরকারের এক উচ্চপদস্থ কেবিনেট কর্মকর্তাও তার জালে ধরা পড়েছিলেন বলে কথিত আছে। ২০১০ সালে গ্রেপ্তার হওয়ার পর রাশিয়ায় ফেরত পাঠিয়ে দেয়া হয় আনাকে। স্বদেশে প্রত্যাবর্তন করে একপ্রকার তারকা বনে যান তিনি। টেলিভিশন শো উপস্থাপনা করা থেকে ম্যাগাজিনের সম্পাদক অলংকৃত করে বেশ ভালোই আছেন আনা চ্যাপম্যান।

গরশকোভ রহস্য
আকাশযান কেন্দ্রিক বাণিজ্যকে ঘিরে বছরের পর বছর ধরে রাশিয়া বনাম ভারত স্নায়ুযুদ্ধ লেগেই ছিল। পুরো অবস্থা আরও নাজুক করে তুলতে বিশেষ ভূমিকা রাখে অ্যাডমিরাল গরশকোভ নামক একটি রণতরী।

 

কমোডোর সুখজিন্দর সিংয়ের সাথে রাশিয়ান এক নারীর প্রণয়ের সম্পর্কের মিথ্যা রটনা রটিয়ে ২০০৫-২০০৭ সাল পর্যন্ত তামাম নৌবাহিনীর মাথা খারাপ করে ফেলেছিল রাশিয়ানরা।

তাদের এই অভিযোগ শুনে সত্যি সত্যি সুখজিন্দর সিংকে অভিযুক্ত করে ভারতীয় নৌবাহিনী। তবে নেভি কর্মকর্তারা পরবর্তীতে এ কথা স্বীকার করেন যে, স্নায়ুযুদ্ধের ক্ষেত্রে এই প্রেমের সম্পর্ক কোনো প্রভাব ফেলেনি।

সে যা-ই হোক, দিনশেষে অবশ্য ভারতের এসব শুকনো কথায় চিড়ে ভেজেনি। ৯৭৪ মিলিয়ন ডলারের পরিবর্তে ২.৩৩ বিলিয়ন ডলার দিয়ে অ্যাডমিরাল গরশকোভকে ঘরে তুলে সে দফা ঝামেলা থেকে পরিত্রাণ মেলে ভারতের। ছেলেরাও যে হানি ট্র্যাপে ফেলতে পারে, তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হয়ে আছে অ্যাডমিরাল গরশকোভের এই ঘটনাটি। শেষপর্যন্ত চাকরি চলে যায় সুখজিন্দর সিংয়ের।

 

 

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।