কারাগারে খালেদা জিয়া

রিডার::ফরিদ হোসেন

বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮ ০৯:১৩:১৪ পূর্বাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
খালেদা জিয়াকে।একটি

পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডে কারাগারে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে।একটি সাদা রঙ্গের গাড়িতে করে বেলা তিনটার দিকে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয়।

 

 

কারাগার ঘিরে নিরাপত্তাব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। কারাগারের চারদিকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী টহল ও অবস্থান জোরদার করা হয়েছে। গতকাল বুধবার কারাগারের আশপাশে নতুন করে সিসি ক্যামেরা বসানো হয়েছে।

এ ছাড়া গতকাল থেকেই ওই এলাকায় জনসাধারণের চলাচলেও কড়াকড়ি করা হচ্ছে।

 

 

এর আগে বিদেশ থেকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের নামের আসা অর্থ আত্মসাতের মামলায় দায়ে পাঁচ বছরের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে।একই সঙ্গে মামলায় জিয়া পুত্র তারেক রহমানসহ বাকী পাঁচ আসামীদের দশ বছর করে কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।

আসামীদের সকলকে ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার করে জরিমানা করেছেন বিচারক।

এসময় আদালত বলেন, বয়স, শারীরিক ও সামাজিক অবস্থার বিবেচনা করে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

রায় প্রদানের শুরুতে বিচারক মো. আক্তারুজ্জামান বলেন, এ রায়টি মোট ৬শ ৩২ পৃষ্ঠার। প্রাসঙ্গিক অংশটুকু পড়বো। এরপর আদালত মামলার অভিযোগ, বাদীপক্ষের বক্তব্য তুলে ধরেন। ১৫ মিনিটে দেয়া রায়ের শেষ পর্যায়ে তিনি ১১টি বিবেচ্য বিষয় তুলে ধরেন।

 

 

 

আদালত বলেন, এ মামলায় ৩২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য রেকর্ড করা হয়েছে এবং ৪ জন সাফাই সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ করা হয়েছে। এতে দেখা যায় আসামিপক্ষ তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অপ্রমাণ করতে ব্যার্থ হয়েছে। বাদীপক্ষ আসামিগণের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণে সক্ষম হওয়ায় ন্ডবিধির ৪০৯ ও ১০৯ ধারার বিধান মতে আসামিরা শাস্তি পাওয়ার যোগ্য বলে আালত মনে করেন।

আসামি তারেক রহমান, কাজী সালিমুল হক কামাল, সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদের প্রত্যেককে ন্ডবিধির ৪০৯ ও ১০৯ ধারার বিধান অনুযায়ী দশ বছর করে সশ্রম কারাান্ডে দন্ডিত করা হল।

বর্ণিত সকল আসামিকে ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৪৩ টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করা হল।

অন্যদিকে খালো জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তার শারীরিক অবস্থা ও সামাজিক মর্যাদা বিবেচনা করে দন্ডবিধির ৪০৯ ও ১০৯ ধারার বিধান অনুযায়ী ৫ বছর সশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করা হল।

২০০৮ সালে জরুরি অবস্থার মধ্যে দুদকের দায়ের করা এ মামলার ছয় আসামির মধ্যে খালেদা জিয়ার বড় ছেলে বিএনপির জ্যেষ্ঠ ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সালিমুল হক কামাল, সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদের হয়েছে দশ বছর করে কারাদণ্ড।

 

 

 

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।