একশ রোগীকে হত্যার দায় স্বীকার করলেন জার্মানির নার্স

রিডার::ইউরোপ

বুধবার, ৩১ অক্টোবর, ২০১৮ ০১:৩৩:৪৮ পূর্বাহ্ন
  •  
  •  
  •  
  •  
সম্প্রতি জার্মানির কুখ্যাত

সম্প্রতি জার্মানির কুখ্যাত সিরিয়াল কিলার নার্স নিলস হ্যোগেল ১শ’ রোগীকে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। অল্ডেনবুর্গ আদালতে মঙ্গলবার হ্যোগেলের বিরুদ্ধে মামলার শুনানির শুরুতেই তিনি এ স্বীকারোক্তি দেন।

বিবিসি বলছে, তত্ত্বাবধানে থাকা ছয় রোগীকে হত্যার অভিযোগে ৪১ বছর বয়সী এ পুরুষ নার্স ইতিমধ্যেই জার্মানিতে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ভোগ করছেন। এর মধ্যেই ১শ’ জনকে হত্যার কথা স্বীকার করে হ্যোগেল বলেছেন, ১৯৯৯ সাল থেকে ২০০৫ সালের মধ্যে তিনি অল্ডেনবুর্গ শহরের হাসপাতালে ৩৬ জন এবং কাছের ডেলমেনহোর্স্ট শহরের হাসপাতালে ৬৪ রোগীকে হত্যা করেছেন। যাদের বয়স ৩৪ থেকে সর্বোচ্চ ৯৬ বছরের মধ্যে।

হত্যার শিকার রোগীদের স্বজনরা মঙ্গলবার আদালতে উপস্থিত ছিলেন। আদালতের বিচারক একশ রোগী হত্যায় তিনি জড়িত কিনা জানতে চাইলে হ্যোগেল বলেন, ‘হ্যাঁ’।

এ স্বীকারোক্তি দিয়ে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর সবচেয়ে ভয়ঙ্কর ধারাবাহিক খুনিতে পরিণত হলেন হ্যোগেল। আগামী বছরের মে পর্যন্ত এ মামলার শুনানি চলতে পারে। জার্মানির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষের জন্য মামলাটি অত্যন্ত সংবেদনশীল।

তদন্ত কর্মকর্তাদের বিশ্বাস, হ্যোগেল হয়ত আরও অনেককে হত্যা করেছেন। একটি ভিকটিম সাপোর্ট গ্রুপের প্রধান বলেন, “আশা করি প্রতিটি হত্যার জন্যই সে দোষীসাব্যস্ত হবে।”

হ্যোগেল হাসপাতালের যে ইউনিটে সে কাজ করতেন সেখানে তার শিকারদের দেহে প্রাণঘাতী ইঞ্জেকশন প্রয়োগ করতেন। এতে হৃদস্পন্দন বন্ধ হয়ে বা শরীরে রক্তচাপ কমে রোগী মারা যেত।

ঊর্ধ্বতনদের কাছে নিজের দক্ষতা প্রমাণ করতে কিংবা একঘেয়েমি থেকে মুক্তি পেতে হ্যোগেল একাজ করতেন বলে জানিয়েছে কৌসুলিরা। ২০০৫ সালে ডেলমেনহোর্স্ট এক রোগীকে চিকিৎসক দেননি এমন একটি ইঞ্জেকশন প্রয়োগ করতে গিয়ে হ্যোগেল প্রথম ধরা পড়েন।

২০০৮ সালে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে তার সাত বছরের কারাদন্ড হয়। তার অপরাধের বিস্তৃতি জানতে ২০১৪ সালে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে নতুনভাবে তার বিচার শুরু হয়। কমিশন শত শত মেডিকেল রেকর্ড পরীক্ষা করে ও কবর থেকে ১৩৪টি দেহাবশেষ তুলে এনে তাতে ওষুধের মাত্রা সনাক্ত করা চেষ্টা করে; কিন্তু অনেক রোগীর লাশ পুড়িয়ে ফেলায় তদন্ত কঠিন হয়ে পড়ে।

ওই মামলায় শেষ পর্যন্ত দুই রোগীকে হত্যা এবং আরো দুইজনকে হত্যা প্রচেষ্টার অভিযোগে হ্যোগেল দোষীসাব্যস্ত হন এবং তাকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দেওয়া হয়। তবে পরবর্তীতে তদন্তকারীরা জানতে পারেন, হ্যোগেলের অপরাধের শিকার হয়েছেন আরো অনেকে। আদালতে হ্যোগেল বলেন, নিজের কান্ডের জন্য তিনি ‘সত্যিই দুঃখিত’

এই মুহুর্তে পড়া হচ্ছে

গুজবে কান দিয়ে রংপুরের যে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে সেই শহিদুন্নবী জুয়েল আদতে ধর্মভিরু... আরও পড়ুন

আদতে ধর্মভিরু মুসলিম।

নভেম্বরের শুরুতেই নয়া প্রেসিডেন্ট পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ডাকযোগে আগাম ভোট শুরু হয়েছে চলতি মাসে। এরই... আরও পড়ুন

ডাকযোগে আগাম ভোট

হাজী সেলিমপুত্র ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের বহিস্কৃত কাউন্সিলর ইরফান সেলিম এবং তার দেহরক্ষী মোহাম্মদ... আরও পড়ুন

মোহাম্মদ জাহিদের তিন

টানা দশ ঘণ্টা রাশিয়ার রাজধানী মস্কোতে বসে আলোচনার পর আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির... আরও পড়ুন

যুদ্ধবিরতির বিষয়ে

হঠাৎ করে ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায় সামাজিক মাধ্যমগুলোতে উদ্বিগ্ন আমজনতা। চলছে আন্দোলনও। দাবি উঠছে সর্বোচ্চ শাস্তি... আরও পড়ুন

ধর্ষণ বেড়ে যাওয়ায়

প্রায় চার মাস বাদে পদ্মা সেতুর ৩২তম স্প্যান স্থাপনের মধ্য দিয়ে প্রায় ৫ কিলোমিটার দৃশ্যমান... আরও পড়ুন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন ওয়ার্কাস পার্টির ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে একটি নতুন আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন করেছে... আরও পড়ুন

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) উন্মোচন

সৌদি আরবের দক্ষিণাঞ্চলে ইয়েমেনের হুতি বিদ্রোহীদের পাঠানো একটি বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস করেছে সৌদি এয়ার... আরও পড়ুন

বিস্ফোরক ভর্তি ড্রোন ধ্বংস

করোনা আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আসন্ন সাধারণ নির্বাচনের আগে দেশটির ঐতিহ্য অনুযায়ী নির্বাচনী বিতর্ক... আরও পড়ুন

নির্বাচনী বিতর্ক

পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের... আরও পড়ুন

ধর্ষণের অভিযোগে চার শিশু

  সাম্প্রতিক মন্তব্য

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।